নারী উদ্যোক্তাদেরকে যে ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়

নারী উদ্যোক্তাদেরকে যে ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়

নারী উদ্যোক্তাদেরকে যে ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়

নারী উদ্যোক্তাদেরকে যে ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়

যুগের সাথে তাল মিলিয়ে সর্বত্র নারীরা অংশগ্রহণ করছে। এক্ষেত্রে বাদ পড়ছে না ব্যবসাও। সাম্প্রতিক সময়ে ব্যবসা সেক্টরে পুরুষের পাশাপাশি নারীদের অংশগ্রহণ চোখে পড়ার মতো। আর দিন দিন এই সংখ্যা বাড়ছে।

কিন্তু উদ্যোক্তা হিসেবে ব্যবসা শুরু করতে গেলে নারীদেরকে কিছু সমস্যার মুখোমুখি হতে হচ্ছে। এখানে আমরা এই সমস্যা গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

নারী উদ্যোক্তাদের সন্তান ধারণ

এ কথা সত্য যে, অনেক নারী উদ্যোক্তাই সন্তানের মা হতে চায় না। আবার অনেক নারী উদ্যোক্তাকেই ইচ্ছার বাইরে গিয়ে সন্তান ধারণ করতে হয়। আর সন্তান লালন পালনের দায়িত্ব সাধারণত নারীদের উপরই ন্যস্ত থাকে।

সন্তানকে মানুষের মতো মানুষ করতে মায়ের ভূমিকার বিকল্প নেই। ফলে ব্যবসা পরিচালনা করতে গিয়ে তাদেরকে নানা সমস্যায় পরতে হয়। সন্তানদেরকে মানুষের মতো মানুষ করতে গিয়ে নারী উদ্যোক্তারা ব্যবসায় তেমন সময় দিতে পারেন না। যে কারণে ব্যবসায় অনেক অসামঞ্জস্য তৈরি হয়।

সফল স্বামী থাকলে নারীদের ক্যারিয়ার গঠনের দরকার হয় না

কোন নারী যদি সফল ক্যারিয়ার সম্পন্ন স্বামীকে বিয়ে করেন তাহলে অনেকে মনে করেন তার আর ক্যারিয়ারের দরকার নেই। সমাজ ও পরিবারের অনেকেই মনে করেন যেহেতু স্বামীর উজ্জ্বল ক্যারিয়ার বিদ্যমান রয়েছে সেহেতু স্ত্রীকে ক্যারিয়ার গঠনের জন্য চেষ্টা করতে হবে না।

ফলে উদ্যোক্তা হওয়ার মতো যথেষ্ট যোগ্যতা ও ব্যবসার ধারণা থাকা সত্ত্বেও বাধা তৈরি হয়। এক্ষেত্রে সমাজ এবং পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি স্বামীও অনেক সময় একই দৃষ্টিভঙ্গি পোষণ করে থাকেন।

নারীরা অতি আবেগী

নারীরা সাধারণত অতি আবেগী হয়ে থাকে। কিন্তু ব্যবসা পরিচালনার ক্ষেত্রে আবেগী হওয়ার চেয়ে বাস্তববাদী ও বিচক্ষণ হওয়া জরুরী। আর নারীরা অনেক ক্ষেত্রেই বাস্তববাদী না হয়ে আবেগী হয়ে থাকে। ফলে ব্যবসা পরিচালনা করতে গিয়ে নানান ঝটিলতা তৈরি হতে পারে।

আর্কষণীয় চেহারা

দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্যি, আর্কষণীয় চেহারার অধিকারী নারীদেরকে পুরুষ কর্তৃক নানা ধরনের হেনস্থার শিকার হতে হয়। যে কারণে অনেক সময় আর্কষণীয় চেহারার অধিকারী নারীদেরকে তাদের পরিবারের সদস্যরা উদ্যোক্তা হিসেবে ব্যবসা শুরু করতে বাধা প্রদান করে থাকে।

আবার যদিও ব্যবসার সাথে আর্কষণীয় চেহারার কোন সম্পর্ক নেই,  তবুও উদ্যোক্তা নারী যদি আর্কষণীয় চেহারার অধিকারী না হয়ে থাকেন তাহলে অনেক সময় গ্রাহকরা আগ্রহী হয় না।

নারীদের অতিরিক্ত প্রতিক্রিয়া ও ভুল বোঝা

এ কথা সত্য যে, নারীরা অনেক সময় অতিরিক্ত সংবেদনশীল হয়ে থাকেন। আবার অনেক সময় নিরপেক্ষ ভাষা ব্যবহার করতে গিয়ে সঠিক জায়গায় সঠিক আচরণ করতে ব্যর্থ হয়ে থাকেন। ফলে অনেক সময় কর্মীদের সাথে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হতে পারে।

যা ব্যবসায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। পাশাপাশি নারীরা অনেক সময় অনেক জিনিস ভুল বুঝে থাকেন। তাছাড়া তারা অনেক সময় কর্মীদেরকেও ভুল বুঝে থাকেন।