সফল উদ্যোক্তা হিসাবে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার ৭টি উপায়

সফল উদ্যোক্তা হিসাবে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার ৭টি উপায়

সফল উদ্যোক্তা হিসাবে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার ৭টি উপায়

সফল উদ্যোক্তা হিসাবে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার ৭টি উপায়

উদ্যোক্তা হিসাবে দলকে নেতৃত্ব দেওয়া যেকোন উদ্যোক্তার লক্ষ। উদ্যোক্তা হয়ে যখন আপনি নিজের কোম্পানী শুরু করবেন তখন আপনার কোম্পানীকে সাফল্যময় করার জন্য আপনাকে কয়েকটি সূত্র জানতে হবে। আপনি ব্যবসা প্রতিষ্ঠাতার দলের অংশ কিনা, আপনার ব্যবসা বর্তমান বাজারে চলমান কিনা এবং ব্যবসায় ঝুঁকি এড়াতে আপনি কতটুকু সক্ষম তা আপনাকে জানতে হবে। তাছাড়া কঠিন পরিস্থিতিতে আপনার পদক্ষেপ কি হবে তার একটি কৌশলগত দিক নির্ধারণ করতে হবে।

তবে ব্যবসায় খারাপ পরিস্থিতি আসতেই পারে। ভোক্তার আচরণের উপর নির্ভর করে আপনার বাজার বা অর্থনৈতিক অবস্থায় পরিবর্তন আসতে পারে বা পতন ঘটতে পারে। আপনাকে কঠোর ভাবে তা মোকাবেলা করে ব্যবসায় টিকে থাকতে হবে। এখানে ৭টি উপায় আছে যাতে আপনি প্রতিযোগীতাশীল বাজারে বিজয়ী হওয়ার জন্য টিকে থাকতে পারেন এবং সফল উদ্যোক্তা হিসাবে দলকে নেতৃত্ব দিতে পারেন।

উদ্দেশ্যের সঙ্গে নেতৃত্ব

শুরুতে আপনি যদি দক্ষ কর্মী দ্বারা ব্যবসার কাজ গুলো করাতে পারেন তাহলে আপনি আপনার সকল কাজ গুলো অতি দ্রুত সম্পন্ন করতে পারবেন। এর ফলে আপনার নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য দলকে নেতৃত্ব দিতে পারবেন। আপনাকে দলের এমন সদস্যদের খোঁজাখুঁজি করতে হবে যারা আপনার কোম্পানীর জন্য কঠিন ভাবে কাজ করতে ইচ্ছুক এবং আপনার কোম্পানীকে জয়ী করার জন্য অবদান রাখবে।

তবে আপনাকে কঠিন সময়ে তাদেরকে অনুপ্রানিত করতে হবে। মনে রাখবেন আপনি যদি দলের সাথে একত্রিত হয়ে আপনার কাজটি করতে পারেন তাহলে আপনি যে কোন কঠিন সমস্যা সমাধান করতে সক্ষম হবেন। আর এ জন্য আপনাকে একটি নির্দিষ্ট উদ্দেশ্য নির্ধারণ করতে হবে।

নিয়মিত আপনার ব্যবসায়িক দূরদর্শিতা প্রকাশ করুন

কোম্পানীর সফলতা অর্জনের জন্য অবশ্যই নেতৃত্বের দক্ষতা সম্পন্ন এবং দলকে সঠিক দিক নির্দেশনা দেওয়ার  জন্য যোগ্য নেতার দরকার হয়। আপনার পন্যের উদ্দেশ্য এবং সেই সাথে আপনার কোম্পানীর জন্য স্বল্পমেয়াদী বা দীর্ঘমেয়াদী লক্ষ্য প্রতিটি ব্যক্তির জন্য নির্দেশিকা হতে পারে। আপনাকে একজন আশাবাদী এবং আত্মবিশ্বাসী উদ্যোক্তা হতে হবে। তাছাড়া ব্যবসার কঠিন পরিস্থিতি গুলো আপনি কি করে সমাধান করবেন তা আপনাকে আগ থেকেই ভাবতে হবে।

 করমীদের কথা শুনতে ইচ্ছুক হোন

আপনার দল যখন কোন কাজ করার জন্য নামবে তখন আপনাকে তাদের সম্পর্কে জানতে হবে। তাদের কখন কি সমস্যা হচ্ছে বা আপনি তাদের জন্য কি ব্যবস্থা নিতে পারেন তার একটি ফলাফল আপনি তাদের কাছ থেকে জানতে চাইতে পারেন। তাছাড়া মূলত তাদের সাথে যোগাযোগের ফলে আপনি তাদের সাথে সম্পর্কই ভাল রাখছেন না বরং আপনার কাজের বিশ্লেষণ বা বিভিন্ন জটিল সমস্যা সমাধানের পরামর্শও আপনি তাদের কাছ থেকে কাজ গ্রহন করতে পারছেন। তাই আপনাকে তাদের মতামত গুলো শোনার আগ্রহ প্রকাশ করতে হবে।

প্রতিদ্বন্ধীতা

যে কোন ব্যবসাতেই প্রতিদ্বন্ধীতা রয়েছে। উদ্যোক্তা হিসাবে দলকে নেতৃত্ব দিতে হলে দলকে কোম্পানীর বাজার প্রতিদ্বন্ধীদের সাথে প্রতিযোগীতা করার ঝুঁকি গ্রহনে দক্ষ হতে হবে। ব্যবসার স্বার্থে আপনার কোম্পানীতে আপনি নতুন কিছু উদ্ভাবন করতে পারেন। আর এক্ষেত্রে আপনার দল দিয়েই আপনি কাজ গুলো করাতে সক্ষম হবেন। তবে কাজ করার সময় তাদের দ্বারা আপনার সম্পদ নষ্ট হতে পারে বা আপনার পন্যের গুনগত মান ঠিক নাও হতে পারে। তাই আপনার উচিত হবে পন্য উদ্ভাবনের সময় আপনার দৃষ্টিকে সজাগ রাখা। তা না হলে গ্রাহকদের কাছে আপনার সুনাম হ্রাস পাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে।

একজন দক্ষতা সম্পন্ন পরিচালক আপনার দলকে আরও উন্নত ও শক্তিশালী করে তুলতে পারে। আপনি যেহেতু আপনার কোম্পানীর পরিকল্পনাবীদ সেহেতু আপনাকেই আপনার অপ্রতিরোধ্য সম্পদ গুলোকে পরিচালিত করতে হবে। প্রয়োজনীয় তথ্য এবং অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে আপনি আপনার কার্যক্রম গুলোকে পরিচালিত করতে পারেন।

অনিশ্চিত সময়ে দ্রুত সঠিক সিদ্বান্ত নিন

উদ্যোক্তা হিসাবে দলকে নেতৃত্ব দিতে হলে ব্যবসায় যখন আপনি কোন সিদ্ধান্ত গ্রহন করবেন তখন আপনাকে অনেক সময় নিয়ে গভীরভাবে চিন্তা করে তা গ্রহন করতে হবে। ব্যবসায় কঠিন পরিস্থিতি বা অনিশ্চিত সময় আসতেই পারে। তাই এই ক্ষেত্রে আপনার উচিত হবে এই কঠিন পরিস্থিতিতে সিদ্বান্ত গ্রহনের সময় সতর্কতা অবলম্বন করা। আপনার ব্যবসা সম্পর্কে সঠিক তথ্য, আপনার বুদ্ধির পরিচয়, আপনার দৃঢ়তা এবং আপনার আত্মবিশ্বাসই আপনার ব্যবসার কঠিন পরিস্থিতিতে আপনাকে সিদ্বান্ত গ্রহনে সাহায্য করতে পারে।