আমার ২ বন্ধু একজন গরীব অন্যজন ধনী

আমার ২ বন্ধু একজন গরীব অন্যজন ধনী

আমার ২ বন্ধু একজন গরীব অন্যজন ধনী

রুপক অর্থে আমার ২ বন্ধু। একজন গরীব অন্যজন ধনী। তাদের একসাথে বেড়ে উঠা, খেলাধুলা, ও পড়াশুনা। ক্যারিয়ারে একটা স্টেইজে এসে এক বন্ধু বেশ ধনী হয়ে গেল এবং আরেক জন গরীব রয়ে গেল।

ছোট বেলা থেকে এরা একসাথে থাকলেও এদের মধ্যে চিন্তা ভাবনা, ধ্যান-ধারনা, মানসিক দৃষ্টিভঙ্গি বেশ আলাদা ছিল। আসুন জানার চেষ্টা করি, কি এমন পার্থক্য ছিল যে তাদেরকে আর্থিক ভাবে দুইজনকে দুই দিকে নিয়ে গেল।

#১। আমার গরিব বন্ধু আগে খরচ করত পরে জমাত। অন্যদিকে, ধনী বন্ধু খরচের আগে সঞ্চয় করত।

#২। আমার গরিব বন্ধু শুধু টাকা জমানোর জন্য টাকা জমাতো, অন্যদিকে ধনী বন্ধু বিনিয়োগের উদ্দেশ্যে টাকা জমাতো।

#৩। সখ পুরন করার জন্য আমার গরীব বন্ধু এতটাই মরিয়া ছিল যে, লোন করে হলেও সখ পূরণ করত। এই তো কিছু দিন আগে, লোন করে সে একটা মোটর সাইকেল কিনলো।

যদিও ধনী বন্ধু তাকে সতর্ক করে বলেছিল, এখন মোটর সাইকেল না কেনাই উত্তম। প্রথমত নিজের টাকা নেই, লোনের টাকা, দিতে হবে বাড়তি সুদ, এর পরে তেল-মবিলের খরচ তো আছেই। এ-যেন লোন করে Liability কিনে আনা।

#৪। আমার গরীব বন্ধু অন্যকে দেখানোর কাজে নিজেকে ব্যস্ত রাখত। নিত্য নতুন পোশাক কেনা, দামী ফোন ব্যবহার করা, দামী পারফিউম ব্যবহার করা, যাতে মানুষ জন তাকে বাহবা দেয় এই চেষ্টাই ছিল তা মধ্যে। আর অন্যদিকে, আমার ধনী বন্ধু নিজের দরকারের বাইরে খরচের থেকে নিজেকে গুটিয়ে রাখত।

#৫। আমার ধণী বন্ধু বই পড়তে পছন্দ করত অন্যদিকে গরীব বন্ধু টিভি দেখতে পছন্দ করত।

#৬। ধনী বন্ধু একটি কাজে সফল না হওয়া পর্যন্ত লেগেই থাকত আর গরীব বন্ধু ব্যর্থ হলে সেই কাজের দিকে দ্বিতীয়বার ফিরেও তাকাতো না এবং অন্য একটি কাজ শুরু করত।

#৭। গরীব বন্ধু তাৎক্ষণিক ফলাফল প্রত্যাশা করত, ধনী বন্ধু ভালো ফলাফল না পাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করত।

#৮। অফিস টাইমের বাইরে ধনী বন্ধু আয়ের বিকল্প উৎস নিয়ে কাজ করত, গরীব বন্ধু কোণ রকম অফিস ছুটি হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করত। আরো পড়ুন- যে ৮ কারনে ধনীরা তাদের সম্পদ ধরে রাখতে পারে 

#৯। গরীব বন্ধুর মাথায় অনেক আইডিয়া ঘুরপাক খেত সারাক্ষন, তবে কোণটাই বাস্তবরুপ দিতে পারে না। অপরদিকে আমার ধণী বন্ধু কোণ আইডিয়া পেলে তা পূরণ করার পর অন্য আইডিয়া নিয়ে চিন্তা করত।

#১০। আমার গরীব বন্ধু ব্যর্থ হওয়া এবং মানুষ কি ভাববে এই ভয়ে কোণ কাজ শুরু করতে পারত না।

অন্যদিকে ধনী বন্ধু জানত সে না খেয়ে থাকলে এই মানুষগুলো তার মুখে খাবার তুলে দিবে না। তাই সে ব্যর্থ হওয়ার ভয় বা মানুষের ভয়কে উপেক্ষা করে কাজে নেমে পড়ত।

#১১। কোন সমস্যা আসলে আমার ধণী বন্ধু মোকাবেলা করত আর গরীব বন্ধু তার রাস্তা পরিবর্তন করে অন্য দিকে চলে যেত।

#১২। আমার গরীব বন্ধু কোন কাজে ঝুঁকি নিতে চাইতো না, অন্যদিকে ধনী বন্ধু ঝুঁকি বিশ্লেষণ করে দরকারী ঝুঁকি নিত।

#১৩। ধনী বন্ধু যেই বিষয়ে জানত না সে সরাসরি বলে দিত আমি জানি না, অন্যদিকে আমার গরীব বন্ধু জানুক না নাই জানুক সব বিষয়ে তার একটি উত্তর প্রস্তুত থাকত।  আমাদের ইউটিউব চ্যানেল লিঙ্ক – Bangla Preneur