প্রকল্প বাস্তবনায় আর্থিক বিশ্লেষণ

প্রকল্প বাস্তবনায় আর্থিক বিশ্লেষণ

প্রকল্প বাস্তবনায় আর্থিক বিশ্লেষণ

প্রকল্প বাস্তবনায় আর্থিক বিশ্লেষণ

প্রকল্প হলো কাজ, যে কাজের মাধ্যমে মানুষের কল্যাণ ও উন্নতি সাধিত হয় ও বিভিন্ন সুযোগ সুবিধার সৃষ্টি করে। সুযোগ সুবিধায় প্রধানত পণ্য উৎপাদন ও সেবা সমূহকে বুঝানো হয়। এ ক্ষেত্রে প্রকল্প প্রস্তাবনায় বিনিয়োগ বিষয়টি অপরিহায্য অর্থনৈতিক প্রক্রিয়া প্রকল্পের বাজেটকে সুক্ষভাবে বিশ্লেষণ করা হয়ে থাকে।

 

বাজেট: বাজেট হলো সম্ভাব্য আয় ব্যয়ের হিসাব। যাহা যে কোন পরিবার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও রাষ্ট্রের ক্ষেত্রে সমান ভাবে প্রযোজ্য। আয়ের সাথে সংগতি রেখে বাজেট প্রণয়ন হয়ে থাকে। সর্বোপরি আয় ব্যয়ের আগাম রূপরেখা প্রনয়নই বাজেট।

প্রকল্প প্রস্তাবনায় বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত গ্রহণ 

প্রকল্প প্রস্তাবনায় বাজেট বিশ্লেষনের ক্ষেত্রেঅনুসরনীয় নীতি মালা:

১। নিদৃষ্ট প্রকল্প সংশ্লিষ্ট বাজেটের আয় ব্যয়ের খাত সমূহ ধারবাহিক ভাবে বিশ্লেষন করা ভিন্ন ভিন্ন প্রকর্পের বাজেটে আয় ব্যয়ের ভিন্নতা থাকে।

২। প্রকল্প এলাকার আয় ব্যয়ের খাত সমূহ ঐ এলাকার বীজনমান, বাজার  চাহিদা, বাজারদর, কাঁচা মালের সম্ভাব্যতা ও উৎপাদন সংক্রান্ত তর্থ্যের সাথে সম্পৃক্ত ও সামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়াৎ

৩। সম্ভাব্যতার ভিত্তিতে নতুন প্রকল্প স্থাপনে কারিগরী দিক বিবেচনা করে প্রকল্পে গ্রহনে অগ্রাধিকার দেওয়া ও বাস্তবায়নে স্থির সিদ্ধান্ত গ্রহণ।

৪। কৃষিজাতত প্রকল্পে আয় ব্যয়ে বৈজ্ঞানিকভাবে খাত ভিত্তিক পরীক্ষার ফলাফল নিদৃষ্ট এলাকার উৎপাদন সংক্রান্ত ফলাফলের সাথে পূর্ণ হতে হবে। উৎপাদন উপকরনের ব্যবহার ও উৎপাদন রেকর্ড।

৫। আয়ের খাত সমূহ প্রকল্প বাস্তবায়নকৃত এলাকার সর্বোচ্চ উৎপাদন ও সর্বনিম্ম উৎপাদনের গড়ের সাথে সম্পৃক্ত হতে হবে।

৬। সামাজিক নিরাপত্তা মূলক কর্মসূচি সম্পৃক্ত করা।

৭। ভুল প্রকল্প নেওয়া বাস্তবায়নে দীর্ঘসুত্রিতা, তদারকি সমস্য ও অগ্রাধিকার নির্পূনে সমস্য এই জাতীয় প্রকল্প কার্যক্রম গ্রহণ এড়িয়ে চলা।

৮। চুরি, দূর্নীতি, স্বজনপ্রীতি, অপচয় ইত্যাদি ঠেকাতে নিরাপত্তা, স্বচ্ছতা, ও জবাবদিহিতামূলক ব্যবস্থা কৌশল বাজেটে থাকা।

 

প্রকল্প প্রস্তাবনা তৈরীর ক্ষেত্রে একজন উদ্যোক্তার তারতম্য ও কারণীয়:

১। প্রকল্প প্রস্তাবনা তৈরীর পূর্বেই উক্ত প্রকল্পর আয় ব্যায় সংক্রান্ত বিষয়ে স্বচ্ছ ধারনা থাকা।

২। কি পরিমান কাঁচামাল ব্যবহার করে কি পরিমান পণ্য উৎপাদন হবে সে বিষয়ে ধারনা থাকা।

৩।প্রকল্পের পরিচালনা বাজেট তৈরী, ও বাজেট বিশ্লেষণ সম্পর্কে পূনাঙ্গ ধারনা থাকা।

৪। বাজেট তৈরীর পূর্বেই পণ্য উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ, কাঁচামাল পরিমান নিধারণ ও অন্যান্য আরো জিনিষ প্রয়োজনে হতে পারে তার পরিমান নির্ধারন।

৫। অর্থের সময় মূল্যকে আর্থিক বিশ্লেষনে অন্তভুক্ত করা।

৬। প্রকল্পের আর্থিক বিবরনী নির্ধারন করা, যাহা এলাকার বাজারদর, চাহিদা ও লক্ষ্য মাত্রার সাতে সঙ্গতি পূর্ণ।

৭। প্রকল্পের ধরন অনুযায়ী অভিজ্ঞ ব্যক্তিদের  পরামর্শ নেওয়া এবং প্রকল্পের যুগউপযোগীতা যাচাই করা।