বিশ্বের ১০ টি বৃহত্তম বাহিনী #২ ভারত

বিশ্বের ১০ টি বৃহত্তম বাহিনী

বিশ্বের ১০ টি বৃহত্তম বাহিনী

বিশ্বের ১০ টি বৃহত্তম বাহিনী

আমরা যে পৃথিবীতে বাস করছি তা পুরোপুরি নিখুঁত নয়। মানে প্রায় প্রতিটি দেশেরই সেনা বাহিনী ও অস্ত্রের প্রয়োজন হয়। তাছাড়া অনেক দেশ নানা কারণে একে অন্যের সাথে যুদ্ধে লিপ্ত হয়ে যায়। বিভিন্ন দেশ তাদের সীমানার আভ্যন্তরীণ ও বাহিরের নানা নিরাপত্তা ঝুকিঁ ও হুমকি মোকাবেলার জন্য শক্তিশালী বাহিনী গঠন করে থাকে। তারা নিজের দেশের স্বার্থ সুরক্ষার জন্য শক্তিশালী ও বিশাল বাহিনী গড়ে তুলতে বাধ্য হন। নিচে পৃথিবীর বৃহত্তম ১০ টি বাহিনী নিয়ে আলোচনা করা হলো।

চীন

বিশ্বের সবচয়ে বৃহত্তম বাহিনী নির্বাচন করতে গেলে আমরা অনেক দেশের বাহিনীকেই বিবেচনায় নিতে পারব। এর মধ্যে চীনই হচ্ছে সবচেয়ে বড় সেনাবাহিনীর দেশ। তাছাড়া তাদের সেনাবাহিনী অত্যন্ত সুপ্রশিক্ষিতও বটে। এই দেশটি গত ৫ বছর তাদের মোট বাজেটের ১০% সামরিক খাতে খরচ করেছে।

১৯২৭ সালে চীনের সেনাবাহিনী প্রতিষ্ঠিত হয়। এই বাহিনীটি চীন পিপলস লিবারেশন আর্মি হিসেবে পরিচিত। যা সশস্ত্র পুলিশ, আর্টিলারী, ন্যাভি ও শক্তিশালী বিমান বাহিনী দ্বারা গঠিত।

এই বাহিনীটি প্রায় ২২৮৩০০০ জন কর্মি নিয়ে গঠিত। এই বাহিনীর অধিকাংশ সদস্য ১৮ থেকে ৪৯ বছর বয়সী। এই বাহিনীর প্রতিটি সদস্য সুপ্রশিক্ষিত।

ভারত

পৃথিবীর বৃহত্তম স্থায়ী বাহিনীর তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। এই দেশের মোট বাজেটের একটি বড় অংশ সামরিক খাতে খরচ করা হয়ে থাকে। ভারতের সেনাবাহিনী মিসাইল সহ অন্যান্য আধুনিক অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত। এই বাহিনী উপকূল থেকে অনেক দূরের লক্ষ্য বস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম। এই বাহিনীর মোট সদস্য সংখ্যা ১৩৯৫১০০ জন।

যুক্তরাষ্ট্র

বৃহত্তম সেনাবাহিনীর তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র তৃতীয় স্থানে রয়েছে। কিন্তু এই বাহিনী পৃথিবীর সবচেয়ে শক্তিশালী বাহিনী। তাছাড়া এই বাহিনীটি সবচেয়ে বেশি আধুনিক অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত।

যুক্তরাষ্ট্রের মোট সামরিক বাজেট প্রায় ৬১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ১৭৭৫ সালে এই সেনাবাহিনীটি গঠিত হয়। এই সেনাবাহিনীতে প্রায় ১৩৪৭৩০০ জন সক্রিয় কর্মি নিয়োজিত রয়েছে। এই সেনাবাহিনীটি বিশ্বের সবচেয়ে প্রশিক্ষিত ও ক্ষমতাশালী বাহিনী।

আরো পড়ুন – ব্যবসা শুরু করার জন্য সেরা ১০ টি দেশ

উত্তর কোরিয়া

বিশ্বের সবচেয়ে বৃহত্তম সেনাবাহিনী সম্দ্ধৃ দেশের একটি হলো দক্ষিণ কোরিয়া। এই দেশের সেনা বাহিনী অত্যন্ত প্রশিক্ষিত। এই সেনাবাহিনীটিতে প্রায় ১২০০০০০ জন সক্রিয় কর্মি নিয়োজিত রয়েছে। এই বাহিনী যে কোন ধরনের আক্রমণ প্রতিহত করতে সক্ষম।

রাশিয়া

সুশিক্ষিত ও শক্তিশালী সেনাবাহিনীর জন্য রাশিয়া সারা বিশে^ সুপরিচিত। বর্তমানে এটি বিশে^র সর্ব বৃহৎ বাহিনীর মধ্যে ৫ম স্থানে রয়েছে। বর্তমানে এই দেশের সেনাবাহিনীতে ৮৩২০০০ জন সক্রিয় কর্মি নিয়োজিত  রয়েছে। এই দেশের সেনা বাহিনী ১৮ থেকে ২৭ বছর বয়সী কর্মি তৈরি করে থাকে।

পাকিস্তান

এশিয়া মহাদেশের সবচেয়ে শক্তিশালী ও বৃহত্তম সেনাবাহিনীর একটি পাকিস্তান সেনাবাহিনী। এই দেশের সেনাবাহিনী অত্যন্ত প্রশিক্ষিত এবং প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে সক্ষম। এই দেশের সেনাবাহিনীতে নিয়োজিত কর্মির সংখ্যা প্রায় ৬৫৩৮০০ জন।

দক্ষিণ কোরিয়া

অত্যন্ত দক্ষ ও প্রশিক্ষিত সেনাবাহিনীর একটি দক্ষিণ কোরিয়ার সেনাবাহিনী। দক্ষিণ কোরিয়া তার দেশের মোট বার্ষিক বাজেটের একটি বিশাল অংশ খরচ করে থাকে সামরিক খাতে। এই দেশের সেনাবাহিনীতে কর্মরত কর্মির সংখ্যা প্রায় ৬৩০০০০ জন।

ইরান

ইরান বিশে^র বৃহত্তম সেনাবাহিনীর তালিকায় ৮ম স্থানে রয়েছে। এই দেশের সেনাবাহিনী অত্যন্ত প্রশিক্ষিত ও আধুনিক অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত। এই দেশের সেনাবাহিনীর সক্রিয় সদস্য সংখ্যা প্রায় ৫২৩০০০ জন।

ভিয়েতনাম

ভিয়েতনামের সেনাবাহিনী অত্যন্ত চৌকস ও প্রশিক্ষিত। এই দেশের সেনাবাহিনীর মোট সদস্য সংখ্যা প্রায় ৪৮২০০০ জন।

মিসর

মিসর বৃহত্তম সেনাবাহিনীর তালিকায় ১০ম স্থানে রয়েছে। এই দেশের সেনাবাহিনীর মোট সক্রিয় সদস্য সংখ্যা ৪৩৮৫০০ জন।