সফল উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য কি কি যোগ্যতা ও দক্ষতা থাকা প্রয়োজন

সফল উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য কি কি যোগ্যতা ও দক্ষতা থাকা প্রয়োজন

একজন সফল উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য কি কি যোগ্যতা ও দক্ষতা থাকা প্রয়োজন এর তালিকাটি বেশ বড়। তবে আমরা যদি সফল উদ্যোক্তাদের কার্যাবলী লক্ষ্য করি তবে বেশ কয়েকটি সাধারণ বৈশিষ্ট্য খুঁজে পাওয়া যায়।

একজন সফল উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য এই সকল বৈশিষ্ট্য আপনার মধ্যে থাকতেই হবে বিষয়টা কিন্তু এরকম না, তবে এই সকল বৈশিষ্ট্য যত বেশী আপনার মধ্যে থাকবে তত বেশী আপনি সামনে এগিয়ে যেতে পারবেন। আসুন জেনে নেই সফল উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য কি কি যোগ্যতা ও দক্ষতা থাকা প্রয়োজন।

#১। সৃজনশীল চিন্তা।

একজন সাধারন ব্যবসায়ী ও একজন উদ্যোক্তা মধ্যে এটি সব চেয়ে বড় পার্থক্য। একজন ব্যবসায়ী যে কোন একটি বিজনেস আইডিয়া নিয়ে কাজ করে থাকে, অপর দিকে একজন উদ্যোক্তা সৃজনশীল বা Creative চিন্তা করে।

নতুন ধারণা তৈরি করার মাধ্যমে একজন উদ্যোক্তা তার লক্ষ্য অর্জনের জন্য ব্যবসা শুরু করে। তাই সকল উদ্যোক্তা ব্যবসায়ী, কিন্তু সকল ব্যবসায়ী উদ্যোক্তা না।

 

#২। আত্মবিশ্বাস।

আত্মবিশ্বাস হলো একজন উদ্যোক্তার প্রধান গুণ। আত্মবিশ্বাসী উদ্যোক্তা তার লক্ষ্য অর্জনের জন্য ঝুঁকি নিতে ইচ্ছুক থাকে।

উদ্যোক্তাদের অনিশ্চিত এবং ঝুঁকিপূর্ণ পরিস্থিতিতে সিদ্ধান্ত নিতে হয়। কেউ যদি উদ্যোক্তা হতে চায় তাহলে অবশ্যই তার বিজনেস আইডিয়া এবং দক্ষতা সম্পর্কে আত্মবিশ্বাসী হতে হবে।

আমাদের মনে রাখতে হবে আমরা কেউ আত্মবিশ্বাস নিয়ে জন্মগ্রহণ করি না,  তবে আমাদের লক্ষ্য অর্জনের জন্য আমাদের আত্মবিশ্বাসী হতে হবে। আত্মবিশ্বাস বাড়াতে পারেন এই ৬ উপায়ে

 

#৩। ঝুঁকি বুজতে পারা।

সাধারনত একজন উদ্যোক্তা অনিশ্চয়তার মধ্যেই ঝুঁকি নিয়ে থাকে। উদ্যোক্তারা অনিশ্চয়তার গভীরে ডুব দিতে প্রস্তুত থাকে।

ব্যবসায় সফল হতে ঝুঁকি নিতে হয়, তবে ঝুঁকি নেওয়া মানে এই না যে, আপনি না জেনে বুজে সময় ও টাকা বিনিয়োগ করবেন।

কোনও উদ্যোগ বাস্তবায়ন করার আগে আপনাকে অবশ্যই ঝুঁকি বুজতে হবে এবং আপনি সেই ঝুঁকি নিতে কতটুকু প্রস্তত তা জানতে হবে।

 

#৪। নেতৃত্বের ক্ষমতা।

আপনি যখন ব্যবসা শুরু করবেন তখন সব কাজ একা করতে পারবেন না এবং সব কাজ একা করা উচিতও হবে না।

আপনাকে যোগ্য ও দক্ষ কর্মী নিয়োগ দিতে হবে। আপনাকে আপনার টিমের নেতা হবে হবে। সঠিক কাজে সঠিক মানুষকে কাজে লাগাতে হবে এবং এই জন্য আপনার চাই নেতৃত্ব দেওয়ার দক্ষতা।

 

#৫। যোগাযোগের দক্ষতা।

উদ্যোক্তা হিসাবে আপনাকে অবশ্যই একজন ভাল যোগাযোগকারী হতে হবে। যোগাযোগ একজন উদ্যোক্তার অন্যতম প্রধান দক্ষতা। ভাল যোগাযোগের দক্ষতা গ্রাহকদেকে আপনার ব্যবসায় আকর্ষণ করার একটি কার্যকারী উপায়।

 

#৬। নমনীয়তা।

আপনার ব্যবসায় যদি অপ্রত্যাশিত কিছু ঘটে যায় তবে আপনাকে নমনীয় হতে হবে। যেকোন খারাপ পরিস্থিতিতে আপনাকে সুযোগ খুঁজতে হবে। এর জন্য আপনার মধ্যে ধৈর্য ও নমনীয়তা থাকতে হবে। // কে এম চিশতি সিয়াম – ইউটিউব লিঙ্ক