সফলভাবে ব্যবসা শুরুর ৪টি অপ্রচলিত টিপস

সফলভাবে ব্যবসা শুরুর ৪টি অপ্রচলিত টিপস

সফলভাবে ব্যবসা শুরুর ৪টি অপ্রচলিত টিপস

ব্যবসা ক্ষেএ দিন দিন অনেক বেশী পরিবর্তন হচ্ছে। আগের তুলনায় এখন অনেক বেশী প্রতিযোগীতা বাড়ছে যা সামনের দিনগুলোতে আরো অনেক বাড়বে। একজন ব্যবসায়ী হিসেবে আপনি অবশ্যই চাইবেন আপনার ব্যবসাটিকে সফল করতে।

আপনি হয়ত ব্যবসাটিকে সফল করার জন্য ইতিপূর্বে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহন করেছেন, আজকের এই আর্টিকেলে আমি আপনার জন্য ৪টি অপ্রচলিত টিপস নিয়ে এসেছি যা আপনার ব্যবসাকে সফল করতে হয়ত আরেকটু সাহায্য করবে।

#১। ভবিষ্যতকে ভিন্নভাবে দেখুন

একজন উদ্যোক্তা হিসাবে আপনাকে অন্যদের থেকে একটু আলাদা হতে হবে। ভবিষ্যতকে অন্যরা যেভাবে দেখে আপনাকে ঠিক তার ভিন্নভাবে দেখতে হবে। বাস্তবতার পরশ লাগিয়ে ব্যবসাটির ভবিষ্যত উন্নতি করার জন্য আলাদা প্ল্যান করতে হবে।

আগামী ২ বছরের মধ্যে ব্যবসাটিকে কোথায় দেখতে চান তার একটি সুস্পষ্ট প্ল্যান করে নিতে হবে। আপনার পরিকল্পনা তৈরি হয়ে গেলে তা বাস্তবরূপ দেওয়ার জন্য ছোট ছোট লক্ষ্য নির্ধারণ করতে হবে।

লক্ষ্যগুলো যেন বাস্তবসম্মত এবং অর্জন করার ধাপগুলো আপনার জানা থাকে সেই দিকে বিশেষ নজর দিতে হবে।

#২। ছোট আকারে শুরু করুন

যে কোন ব্যবসা ছোট বিনিয়োগে শুরু করাই উত্তম, কেননা এতে রিস্ক কম থাকে এবং অভিজ্ঞতা অর্জন করা সহজ হয়।

আপনি যদি দেখেন অন্যরা অনেক বড় আকারে তাদের ব্যবসাটি শুরু করছে তবে আপনি হতাশ হবেন না।

ব্যবসায় প্রতিযোগীদেরকে কখনই শত্রু ভাববেন না, তাদের ব্যবসা নিয়ে গবেষণা করুন, তারা তাদের ব্যবসায় উন্নতির জন্য কি করছে তা খুঁজে বের করুন।

আপনি যখন আপনার প্ল্যান এবং প্রতিযোগীদের প্ল্যান বুজতে পারবেন তখন ব্যবসাকে ভিন্ন ভাবে সাজাতে পারবেন।

এছাড়া কখনই আপনার হাতে থাকা সব টাকা একসাথে বিনিয়োগ করবেন না, আপনার যদি কম টাকা থাকে তাহলে সেই কম টাকা দিয়েই শুরু করুন।

#৩। ব্যবসার কৌশল তৈরি করুন

একজন উদ্যোক্তাকে অবশ্যই কৌশলী হতে হয়। একজন ব্যবসায়ীর কাছে টাকা গুরুত্ব অনেক বেশী অন্য দিকে একজন উদ্যোক্তার কাছে সময়ের মূল্য বেশী।

একজন ব্যবসায়ী কোন রকম লাভজনক বিজনেস আইডিয়া খুঁজে ব্যবসা করে, অন্য দিকে একজন উদ্যোক্তা গ্রাহকদের সমস্যা খুঁজে তার সমাধান করার চেষ্টা করে।

সফলভাবে ব্যবসা শুরু করতে চাইলে আপনাকে গ্রাহকদের সমস্যার সমাধান করতে হবে।

#৪। জানার আগ্রহ কখনই হারাবেন না

আপনার হয়ত ব্যবসায় অনেক অভিজ্ঞতা আছে তারপরেও আপনার জানার আগ্রহ থাকতে হবে।

বিশেষ করে আপনার কর্মচারীদের কাছ থেকে বুদ্ধি পরামর্ষ নিতে পারেন, এতে তারা খুশী হয় এবং কাজে আরোও বেশী মনোযোগ দিতে পারে।

আপনি যেই সেক্টরে ব্যবসা করছেন সেই সেক্টরে অন্য কে বা কারা ব্যবসা করছে তাদের খুঁজে বের করুন, তাদের সাথে ভালো সম্পর্ক গড়ে তুলুন, দেখবেন এতে আপনার লাভই হবে।

ব্যবসায় কোন সিন্ধান্ত নেওয়ার আগে অন্যদের বুদ্ধি পরামর্ষ নিবেন কিন্তু সিন্ধান্ত নিজের বুদ্ধি বিবেক কাজে লাগিয়েই নিতে হবে।