যে ৭টি ভুল একজন নতুন ব্যবসায়ী করে থাকে

এই ৭টি ভুল একজন নতুন ব্যবসায়ী করে থাকে

৭টি ভুল একজন নতুন ব্যবসায়ী করে থাকে

৭টি ভুল একজন নতুন ব্যবসায়ী করে থাকে

নতুন ব্যবসায়ী হিসাবে নিজেকে আত্মপ্রকাশ করতে চাচ্ছেন? যেকোন ব্যবসা চালাতে সময়, কঠোর পরিশ্রম এবং প্রতিশ্রুতি লাগে। আপনার নতুন ব্যবসায়টি শুরু করতে কিছু সাধারণ ও প্রারম্ভিক ভুল হতেই পারে, তবে তার সমাধানও আপনাকে করতে হবে। কেননা  একটি ভুল আপনার সম্পূর্ণ ব্যবসাটিকে ধংসের পথে নিয়ে যেতে পারে। এই আর্টকেলটি তাদের জন্য যারা নতুন ব্যবসায়ী অথবা যারা নতুন ব্যবসা শুরু করতে যাচ্ছেন তাদের জন্য। 

#৭ আপনি চিন্তা করছেন আপনি নিজেই এটি করতে পারবেন

ব্যবসা শুরু করা যথেষ্ট আনন্দের, তবে নিজেকে তাড়াহুড়ায় ফেলবেন না। আপনি যে বিষয়ে ভালো জানেন বা বুজতে পারেন এবং যা করতে উপভোগ করেন সেগুলিতে মনোনিবেশ করার চেষ্টা করুন। এছাড়া এমন কোন ব্যক্তিকে নিয়োগ করুন যে আপনাকে কাজে সাহায্য করবে।  

#৬ আপনার ব্যবসায়িক অংশীদারদের সাথে লিখিত চুক্তিপত্র না করা

এটি অংশীদারিত্বের চুক্তি, এলএলসি অপারেটিং চুক্তি, এমনকি একটি বেচা-বিক্রয় চুক্তিই হোক না কেন, প্রতিটি ব্যবসায়ের জন্য একটি লিখিত নথির প্রয়োজন যা প্রতিটি অংশীদারের অধিকার এবং দায়িত্ব ব্যাখ্যা করে এবং তাদের মধ্যে কেউ যদি ব্যবসা ছেড়ে দেয় তবে কী হবে তাও বর্ণনা করে।

#৫ব্যবসায়িক বীমার প্রয়োজন মনে না করা

অপ্রতাশিত দুর্ঘটনা থেকে ব্যবসাকে রক্ষা করার জন্য ব্যবসায়ীক বীমা করে রাখুন।

#৪ সঠিক ব্যবসায়ের সত্তা গঠন না করা – Not forming the right business entity

সঠিক ব্যবসায়ের সত্তা গঠন না করা থাকলে আপনি অনাকাঙ্ক্ষিত দায়ের সম্মুখীন হতে পারেন। আপনার ব্যবসায়টি এমনভাবে তৈরি করতে হবে যাতে আপনার অর্থের সাশ্রয় হয় এবং দায় এড়াতে আপনাকে সহায়তা করে। এই কাজগুলো নিশ্চিত করার জন্য আপনাকে যথেষ্ট গবেষণা করতে হবে। 

#৩ অস্থিরতা – impatience

আমরা সকলেই জানি রোম একদিনে নির্মিত হয়নি। একই সাথে আপনার নতুন ব্যবসাও একদিনে শুরু হবে না। প্রচুর ব্যবসায়ী প্রথম এক বা দুই বছরে ব্যবসা থেকে কোনও লাভ অর্জন করতে পারেনা এবং প্রাথমিক সাফল্যের পরে কিছুটা ধাক্কা খাওয়া স্বাভাবিক। সফল ব্যবসায়ের মালিকরা এর জন্য প্রস্তুত থাকে এবং ধৈর্যধারণ করে এবং আর্থিকভাবে রিজার্ভ অর্থ গচ্ছিত রেখে থাকে। 

জেনে নিন – যে ৭ কারনে ব্যবসা সফল হয় 

#২মার্কেটিং প্ল্যান না করা

যেকোন ব্যবসায়ের জন্য মার্কেটিং প্ল্যান থাকা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আপনার মার্কেটিং প্ল্যানটি আপনার ব্যবসায়ের পরিকল্পনার সাথে মিল থাকতে হবে। আপনার ব্যবসায় সম্পর্কে কেউ না জানলে আপনি সেই ব্যবসা থেকে অর্থোপার্জনের আশা করতে পারবেন না।

আপনার মার্কেটিং প্ল্যানের অংশ হিসাবে, আপনি আপনার চূড়ান্ত গ্রাহককে খুঁজে পাবেন এবং আপনার পণ্য প্রচারের সর্বোত্তম উপায় খুঁজে পাবেন এবং নিজের প্রতিযোগিতাদের আলাদা করতে সক্ষম হবেন।

#১ লিখিত ব্যবসায়িক পরিকল্পনা না থাকা Not having a written business plan

লিখিত ব্যবসায় পরিকল্পনা ছাড়া কেউ সফল ব্যবসায়ের কল্পনা করতে পারে না। একটি ব্যবসায়ের পরিকল্পনা যে কোনও ব্যবসায়ের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ। পড়ুন – ব্যবসার জন্য বিজনেস প্ল্যান কিভাবে সাজাব?

কারণ একটি ভাল ব্যবসায়ের পরিকল্পনা আপনার পণ্য বা সার্ভিসের জন্য বাজারকে মূল্যায়ন করে থাকে এবং আপনি যে প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হবেন তাও চিহ্নিত করে থাকে। এটি আপনার ব্যবসাটি সফলভাবে শুরু করতে এবং পরিচালনা করতে আপনার যে পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন হবে তা নির্ধারন করতে সাহায্য করবে।