সফলভাবে মুদি দোকান ব্যবসা শুরু করার সূত্র

সফলভাবে মুদি দোকান ব্যবসা শুরু করার সূত্র

সফলভাবে মুদি দোকান ব্যবসা শুরু করার সূত্র

সফলভাবে মুদি দোকান ব্যবসা শুরু করার সূত্র

মাঝারি ব্যবসার আইডিয়া খুঁজছেন? শুরু করুন মুদি দোকান ব্যবসা! তবে সফল ভাবে ব্যবসা পরিচলনা করতে হলে কিছু বিষয় মেনে চলতে হবে। মুদি দোকান ব্যবসা শুরু করার সূত্র-

  • বাকী দেওয়া যাবে না। (একদম না)
  • প্রতিদিন কি কি পণ্য বিক্রি করছেন তা সাথে সাথে একটা খাতায় টুকে রাখুন, পাশে দাম লিখতে ভুলবেন না।
  • দিন শেষে ক্যাশ মিলিয়ে নিন।
  • প্রতি সপ্তাহে আয় কত টাকা হয়েছে তা যাচাই করুন।
  • কি কি পণ্যে লাভ ও বিক্রি কম তা আলাদা করুন।
  • গ্রাহকদের সাথে ভাল ব্যবহার করুন।
  • প্রতিমাসে একটা দিন বিশেষ ছাড় দিন (যদি বিক্রি কম হয়)

আমরা সবাই মুদি দোকান সম্পর্কে কম বেশী জানি। যে সকল দোকান গুলোতে নিত্য প্রয়োজনীয় ভোগ্য পণ্য হতে শুরু করে ব্যবহার্য সকল উপাদান কিনতে পাওয়া যায় সে গুলোই হলো মুদি দোকান। মুদি দোকান পৃথিবীর সর্বত্রই একটি আদর্শ ও উত্তম বেচাকেনার দোকান। সকল পর্যায়ের গ্রাহকরাই তাদের চাহিদা অনুযায়ী পণ্য কেনার জন্য মুদি দোকানে ভিড় জমিয়ে থাকে।

ব্যবসার দৃষ্টিকোণ থেকে মুদি দোকান ব্যবসা হতে পারে একটি কার্যকর ও লাভজনক ব্যবসার ধারণা। মাঝারী মানের পুজিঁ বিনিয়োগ করে নিত্য প্রয়োজনীয় ভোগ্য পণ্য যেমন- চাল, ডাল, আটা, ময়দা, তেল, পেয়াজ, রসুন ইত্যাদি এমনকি ব্রাশ থেকে শুরু করে সেলাই পণ্য সহ সকল প্রকার দ্রব্যের পসরা সাজিয়ে দিব্যি এই ব্যবসাটি পরিচালনা করা যেতে পারে।

যে কোন বেকার ও তরুণ উদ্যোক্তা জনপ্রিয় এই ব্যবসাটিতে নিজেকে অবলীলায় সম্পৃক্ত করতে পারেন। মুদি দোকান ব্যবসা করলে ঝুকিঁ একে বারেই নেই (বাকী ছাড়া) বিধায় বর্তমানে এই ব্যবসায় উদ্যোক্তাদের আগ্রহ পালাক্রমে বাড়ছে। এই ব্যবসায় বাড়তি কোন ঝামেলা নেই বিধায় নারী এমনকি শারীরিক ভাবে অক্ষম বা প্রতিবন্ধি যে কেউ এই ব্যবসাটি শুরু করে নিজেকে আর্থিক ভাবে সাবলম্ভী করে তুলতে পারেন।

মুদি দোকান ব্যবসা করতে ওজন পরিমাপের কৌশল, পণ্য সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান, ও টাকা পয়সা গুণে রাখার মতো দক্ষতা থাকলেই এই ব্যবসাটি শুরু করা যেতে পারে। সততা, কর্মনিষ্ঠা ও পরিশ্রম এই ব্যবসাটিতে যে কোন উদ্যোক্তাকে সফল করে তুলতে পারে।

শহর, মফস্বল এবং গ্রাম সর্বত্রই এই ব্যবসাটি শুরু করা যায়। তবে স্থান নির্ধারণের সময় লোক সমাগম বেশি হয় ও যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো এমন স্থান নির্ধারণ করা জরুরী।

মুদি দোকান ব্যবসা শুরু করতে আনুমানিক ৩ লাখ থেকে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত পুজিঁ বিনিয়োগ করতে হতে পারে। ক্ষেএ বিশেষ আরো বেশী টাকার দরকার হতে পারে।

কিভাবে একটি মুদি দোকান শুরু করবেন: প্রথমেই বাজার বা মার্কেটে একটি উপযুক্ত স্থান নির্ধারণ করে দোকান ভাড়া নিতে হবে। তারপর দোকান ঘরটি মুদি দোকানের উপযোগী করে ডেকোরেশন করতে হবে। তাছাড়া ওজন পরিমাপের জন্য স্কেল ক্রয় করতে হবে এবং ভোক্তাদের বসার জন্য বিশেস স্থানের ব্যবস্থা করলে ভাল হবে। এরপর ভোক্তাদের চাহিদা অনুযায়ী চাল, ডাল, পেয়াজ, রসুন ইত্যাদি ভোগ্য পণ্য ও ব্যবহার্য সামগ্রী পাইকারী দোকান থেকে সুলভ মূল্যে ক্রয় করে দোকান সাজাতে হবে। পাইকারী ক্রয় করা এই সব পণ্য খুচরা মূল্যে বিক্রি করে এই ব্যবসাটি পরিচালনা করতে হবে।

যোগ্যতা: মুদি দোকান ব্যবসা শুরু করতে বিশেষ কোন যোগ্যতার দরকার হয় না।

মুদি দোকান ব্যবসাটি শুরু করে প্রতি মাসে ১২% থেকে ২০% লাভ করা যায়।

বড় চ্যালেঞ্জঃ বাকী! এটি এমন একটি ব্যবসা বাকী দেওয়া নেওয়া যেন খুব সাধারন কিছু। যদি আপনি প্রথমেই বাকীতে বিক্রি শুরু করেন তাহলে ৬ মাসের মধ্যেই ব্যবসা গুটাতে হবে।