২৫ হাজার টাকা ও পরিশ্রম আমার মূলধন, কি ব্যবসা করব এত অল্প টাকায়?

২৫ হাজার টাকায় যে ব্যবসা শুরু করা যায়

২৫ হাজার টাকায় যে ব্যবসা শুরু করা যায়

২৫ হাজার টাকায় যে ব্যবসা শুরু করা যায়

ব্যবসায় টাকা দরকার কিন্তু তার চেয়ে বেশী দরকার পরিশ্রম ও ধৈর্য। সঠিক ব্যবসায় ২৫ হাজার টাকা বিনিয়োগ করে যে সব ব্যবসা শুরু করা যায় তাই নিয়েই আজকের এই পোস্ট।

হাঁস পালন

২৫ হাজার টাকা দিয়ে পতিত পুকুর বা ছোট জলাশয়ে হাঁস পালন ব্যবসা শুরু করতে পারেন। অল্প টাকা বিনিয়োগে হাঁস পালন একটি লাভজনক ব্যবসা। তাছাড়া এটি এমন একটি ব্যবসা যা আপনি চাইলে পরবর্তীতে আরো বড় আকারে খামার দিয়ে করতে পারবেন। দেখে নিন – খামার জন্য সেরা হাঁস

তাই যদি আপনার নিজস্ব জায়গা থাকে তাহলে শুরু করুন হাঁস চাষ। ১০০ টি হাঁস দিয়ে আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। আরো পড়ুন – হাঁসের খামার ব্যবসা শুরু করার ১০টি কারন

লন্ড্রি ব্যবসা

অল্প টাকা দিয়ে শুরু করার মত একটি চমৎকার ব্যবসার নাম লন্ড্রি ব্যবসা। এই ব্যবসায় সব থেকে বড় চ্যালঞ্জ দোকান ঘর ভাড়া নেওয়া। কারন, এডভান্স টাকা দিয়ে দোকান ঘর ভাড়া নিতে হবে। তাই দোকান ঘর ভাড়া আলাদা করে হিসাব করলে অল্প টাকা দিয়ে লন্ড্রি ব্যবসা শুরু করা যায়। বিশেষ ভাবে মফস্বল অঞ্চলে অল্প টাকায় শুরু করতে পারবেন। এই ব্যবসায় শ্রম দিতে পারলে ভাল লাভবান হওয়া যায়।

ভ্রাম্যমাণ স্টেশনারি দোকান

স্টেশনারি ব্যবসা লাভজনক ব্যবসা হিসাবে বিবেচিত। কারন শতকার ২০ থেকে ২৫+ লাভ করা যায়। অল্প পুঁজি দিয়ে ভ্রাম্যমাণ স্টেশনারি দোকান দিয়ে ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, ইউনিভার্সিটি, অফিস এলাকার সামনে প্রয়োজনীয় পণ্য নিয়ে এই ব্যবসা করতে পারেন। আরো পড়ুন – স্টেশনারি ব্যবসা কি লাভজনক?

টি-শার্ট ব্যবসা

পাইকারি দরে টি-শার্ট কিনে খুচরা বাজারে টি-শার্ট ব্যবসা শুরু করতে পারেন। চাইলে ভ্রাম্যমাণ সাইকেল বা ভ্যানে টি-শার্ট বিক্রি করতে পারেন।

টি-শার্ট ব্যবসার মূল মন্ত্র- কেনার সময় জিততে হবে। মানে আপনি যখন পাইকারি দরে কিনবেন তখনই বুজে নিতে হবে আপনি কত টাকা লাভ করতে পারবেন।

অনলাইন ব্লগিং

বর্তমানে একটি মোটামুটি ভাল মানের ডোমেইন ও হোস্টিং কিনতে ৩০০০ টাকা খরচ হতে পারে। ইউটিউব থেকে ওয়ার্ডপ্রেস শিখে শুরু করতে পারেন এই ব্যবসা। কঠিন পরিশ্রম করতে পারলে ভাল টাকা আয় করা সম্ভব। আর্টিকেলটি ভাল লাগবে শেয়ার করতে ভুলবেন না।