ব্যবসা শুরু করার জন্য সেরা ১০ টি দেশ

ব্যবসা শুরু করার জন্য সেরা ১০ টি দেশ

ব্যবসা শুরু করার জন্য সেরা ১০ টি দেশ

ব্যবসা শুরু করার জন্য সেরা ১০ টি দেশ

পৃথিবীর প্রায় সকল মানুষ ব্যবসা শুরু করতে আগ্রহী। কিন্তু পৃথিবীর সব দেশই ব্যবসার জন্য উপযুক্ত নয়। আবার অনেক দেশ আছে যে দেশ গুলোতে ব্যবসা শুরু করা অত্যন্ত সহজ। বিশ্বব্যাংক ১০ টি গুরুত্বপূর্ণ সূচকের উপর ভিত্তি করে ব্যবসা শুরু করার জন্য সবচেয়ে কার্যকর ১০ টি দেশের তালিকা তৈরি করেছে।

এক্ষেএে ব্যবসা শুরু করার সহজতা, বৈদ্যুতিক উপযোগীতা, সম্পত্তি নিবন্ধনের সহজতা, সংখ্যালঘু বিনিযোগকারীদের সুরক্ষা, ট্যাক্সের হার, চুক্তি জোরদার ইত্যাদির উপর সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। নিচে ব্যবসা শুরু করা সহজ এমন ১০ টি দেশ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

১০. সুইডেন

সুইডেন পৃথিবীর সবচেয়ে দক্ষ শ্রম শক্তির দেশ গুলোর মধ্যে একটি। পাশাপাশি এই দেশের জীবন যাত্রার মান অনেক উন্নত। ফলে এটি ব্যবসা শুরু করার জন্য অত্যন্ত চমৎকার দেশ। এই দেশের শক্তিশালী অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও সুসংগঠিত সামাজিক কার্যক্রম গুলো ব্যবসা শুরু করার জন্য বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাতে পারে।

৯. জর্জিয়া

ব্যবসা শুরু করার জন্য পৃথিবীর শীর্ষস্থানীয় দেশ গুলোর একটি জর্জিয়া। বিগত কয়েক বছর যাবৎ মধ্যম আয়ের এই দেশটি উদীয়মান অর্থনীতির দেশ হিসেবে বিভিন্ন সূচকে এগিয়ে যাচ্ছে। আর এর সবচেয়ে বড় কারণ এই দেশটিতে ব্যবসা শুরু করার জন্য অনেক বড় সুযোগ তৈরি হয়েছে। ব্যবসার নিবন্ধনের জন্য এই দেশে মাত্র ২ দিন সময় লাগে। যার জন্য খরচ হয় মাএ ৪০ ডলার।

৮. নরওয়ে

নরওয়ে তার দেশের নাগরিকদের সামাজিক কার্যক্রম গুলোর সাথে শক্তিশালী প্রযুক্তি খাত ও কর্মদক্ষতাকে একত্রিত করতে পেরেছে। যার ফলে বিশ^ব্যাপী তাদের জন্য ব্যবসার দ্বার উন্মুক্ত হয়েছে।

তাছাড়া নরওয়েতে দুর্নীতির অভিযোগ গুলো প্রতিরোধ করার জন্য পৃথিবীর সবচেয়ে কার্যকর প্রক্রিয়া গুলোর মধ্যে একটি বিদ্যমান রয়েছে। পাশাপাশি এই দেশে ব্যবসার প্রারম্ভিক প্রক্রিয়া গুলো সম্পন্ন করতে মাত্র চার দিন সময় লাগে।

৭. যুক্তরাজ্য

যুক্তরাজ্য সহজে ব্যবসা শুরু করা যায় এমন দেশের তালিকায় ৭ম স্থানে রয়েছে। এই দেশের ৮০ শতাংশ নাগরিক বিশ্বাস করেন যে সে দেশে কঠোর পরিশ্রম করতে পারলে জীবন পরিবর্তন করা সম্ভব। তাছাড়া এই দেশে ব্যবসা শুরু করার জন্য প্রারম্ভিক খরচ অত্যন্ত কম।

৬. যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্রে কর্পোরেট ট্যাক্সের হার বেশি হলেও কম মূলধন বিনিয়োগ করে সহজেই এই দেশে ব্যবসা শুরু করার যায়। ব্যবসা শুরু করার জন্য এই দেশে অত্যন্ত আর্কষণীয় পরিবেশ বিরাজমান। এটি ব্যবসা শুরু করার জন্য পৃথিবীর সেরা স্থান গুলোর একটি।

পড়ুন – বাংলাদেশে ব্যবসা শুরু করার সম্ভাব্য খরচ

৫. হংকং

হংকং- এ উচ্চ নিবন্ধন ফি- র কারণে ব্যবসা শুরু করা কঠিন হলেও সেখানে সংখ্যালঘু বিনিয়োগকারীদের জন্য প্রচুর সুরক্ষা বিদ্যমান রয়েছে। তাছাড়া এই দেশে নির্মাণ পারমিট পাওয়াও অত্যন্ত সহজ।

৪. কোরিয়া

কোরিয়া প্রজাতন্ত্রটি ব্যবসা শুরু করার জন্য সেরা স্থান হিসেবে ৪র্থ স্থানে রয়েছে। বিদ্যুৎ, সীমান্ত জুড়ে ব্যবসা পরিচালনা করার সুযোগ, চুক্তি প্রবর্তন ইত্যাদি কারণে এই দেশটি ব্যবসা শুরু করার জন্য সেরা স্থান হিসেবে শীর্ষে অবস্থানকারী রাষ্ট্র গুলোর একটিতে রয়েছে। এই দেশের সরকার উদ্যোক্তাদের আকৃষ্ট করতে ২০১২ সাল থেকে নানা পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে।

৩. ডেনমার্ক

ডেনমার্কের কার্যকর ডিজিটালাইজেশন প্রক্রিয়ার কারণে ব্যবসা শুরু করার জন্য সেরা দেশ গুলোর তালিকায় এটি ৩য় স্থানে রয়েছে। ডিজিটালাইজেশনের কারণে সহজে ও দ্রুত নতুন ব্যবসা গুলো নিবন্ধিত হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে। তাছাড়া এই দেশের সরকার প্রাইমারী সেক্টরকে বাধাগ্রস্ত না করে বাজারের সাথে যোগাযোগের জন্য সহজতর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে।

আলোচিত – ট্রেড লাইসেন্স ব্যবসার শুরুতেই তৈরি করে ব্যবসায় নিজেকে এগিয়ে রাখুন

২. সিঙ্গাপুর

সিঙ্গাপুরের অর্থনীতি অত্যন্ত ব্যবসা বান্ধব। তাছাড়া এই দেশের পরিবেশ ব্যবসার জন্য অত্যন্ত সুরক্ষিত। উদাহরণস্বরূপ, সিঙ্গাপুরের আদালতে ব্যবসা সংক্রান্ত যে কোন বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য সর্বোচ্চ ১৫০ দিন সময় লাগে। যা পৃথিবীর যে কোন দেশের তুলনায় সবচেয়ে কম। এই ধরনের বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ৪২০ দিন সময় লাগে।

১. নিউজিল্যান্ড

অসাধারণ অনলাইন পদ্ধতির কারণে নিউজিল্যান্ডে একটি ব্যবসা শুরু করতে উদ্যোক্তাদের জন্য মাত্র কয়েক ঘন্টা সময় লাগে। গত কয়েক দশকে নিউজিল্যান্ডকে ব্রিটিশ বাজার নির্ভরশীল কৃষি অর্থনীতি  থেকে মুক্ত বাজার অর্থনীতির দেশে রুপান্তরিত করা হয়েছে।

এই দেশটি সংখ্যালঘু বিনিয়োগকারীদেরকে বিশেষ ভাবে সুরক্ষা দিয়ে থাকে। কার্যকর ট্যাক্স কোড ও উন্নত রাজনৈতিক পরিবেশের কারণে এই দেশটি ব্যবসা শুরু করার জন্য সবচেয়ে সেরা দেশের তালিকায় ১ম স্থান অর্জন করে নিয়েছে।