যে ৫টি ব্যবসা দেশের দক্ষিনের জেলা বরগুনায় শুরু করতে পারেন

৫টি ব্যবসা দেশের দক্ষিনের জেলা বরগুনায় শুরু করতে পারেন

যে ৫টি ব্যবসা দেশের দক্ষিনের জেলা বরগুনায় শুরু করতে পারেন

যে ৫টি ব্যবসা দেশের দক্ষিনের জেলা বরগুনায় শুরু করতে পারেন

বরগুনা বাংলাদশের দক্ষিন অঞ্চলের কৃষিনির্ভর জেলা। কৃষিনির্ভর জেলা হলেও অনেক রকম ব্যবসা বরগুনায় শুরু করতে পারেন। সেই লক্ষে আমাদের আজকের এই পোস্ট। বিভিন্ন অনলাইন মাধ্যম ও নিজস্ব গবেষণায় আমরা ৫টি ব্যবসা ধরনা নিয়ে এসেছি যা বরগুনাবাসী শুরু করতে পারবেন।

এক নজরে বরগুনার অর্থনীতি

১৯৩৯.৩৯ কি.মি আয়তনের বরগুনার অর্থনীতি মূলত কৃষিনির্ভর। এখানকার মানুষের প্রধান শস্য ধান ও নানা রকমের ডাল। অনেক আগে এই অঞ্চলে পাট চাষ হত, কিন্তু সময়েরই পরিবর্তনে অর্থকারী ফসল হিসেবে জনপ্রিয়তা এখন আর নেই। সমুদ্রের কাছের জেলা তাই অনেকেই জেলের কাজ করে।

মানুষের মধ্যে এখন পরিবর্তনের হাওয়া লেগে গেছে। নানা মুখী ব্যবসা করার প্রয়োজনীয়তা বেড়েই যাচ্ছে। নিন্মে বরগুনার জন্য ৫টি ব্যবসার ধরনা (বিজনেস আইডিয়া) উল্লেখ করা হচ্ছে।

ছাগল পালন

ছাগল এমন একটি প্রানী যা আপনি যে কোন পরিবেশে পালন করতে পারেন। গরু কিংবা মুরগীর থেকে ছাগল পালনে লাভ বেশী। বরগুনার আবহাওয়া ও মুক্ত পরিবেশ ছাগল পালনের জন্য উপযোগী। অল্প পুঁজি দিয়ে খুব সহজেই ছাগল পালন ব্যবসা শুরু করতে পারেন। ছাগল পালনের সব থেকে বড় সুবিধা খাবারের পিছনে খরচ খুব কম যায়। তাই এই ব্যবসা আমাদের লিস্টে এক নাম্বার জায়গা করে নিয়েছে।

সম্ভব্য পুঁজি- ৫০ হাজার থেকে ১ লক্ষ টাকা

সম্ভব্য লাভ- ২৫% (বছর)

চীনা বাদাম চাষ

বাদাম চাষ হতে পারে আপনার বাড়তি একটি সাইড ব্যবসা। বরগুনার মাটি ও আবহাওয়া বাদাম চাষের জন্য অনেক কার্যকারী। চীনা বাদাম চাষের পাশা পাশি অন্য ব্যবসা করা যায় বিধায় এই ব্যবসাটিকে আমরা দুই নাম্বারে রেখেছি।

সম্ভব্য পুঁজি- ১ লক্ষ টাকা (ধরে নিলাম নিজের জমি আছে)

সম্ভব্য লাভ- ১৮% (বছর)

গরু মোটাতাজাকরন

বরগুনা দেশের সব থেকে দক্ষিনে অবস্থিত হওয়ায় ইন্ডিয়ান গরু কম আসে। তাই স্থানীয় বাজারে দেশী গরুর চাহিদা সব সময় থাকে। এই যে কোন ব্যবসায়ী গরু মোটাতাজাকরন ব্যবসা করতে পারেন। সেই ক্ষেএে কোরবানি সামনে রেখে গরু মোটাতাজাকরন শুরু করতে পারেন।

সম্ভব্য পুঁজি- ৫ লক্ষ টাকা (১০টি ভাল জাতের গরু)

সম্ভব্য লাভ- ৫০ হাজার থেকে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত।

ষ্টেশনারী দোকান

স্কুল বা কলেজের পাশে ষ্টেশনারী দোকান ব্যবসা হতে পারে একটি লাভজনক ব্যবসার ধরনা। এই ব্যবসা করতে সব থেকে বেশী প্রয়োজন সঠিক জায়গা নির্বাচন।

সম্ভব্য পুঁজি- ৫ লক্ষ টাকা

সম্ভব্য লাভ- ১৫ হাজার টাকা প্রতি মাস।

অনলাইন ব্লগ রাইটার

বর্তমান যুগ অনলাইন ভিত্তিক। আপনি বাংলাদেশের যেখানেই থাকেন না কেন এই ব্যবসা বা কাজ করে অনেক টাকা আয় করতে পারে। আপনি এই ব্যবসা ফুল টাইম, বা পার্ট-টাইমও করতে পারে। এই জন্য দক্ষ বাংলা বা ইংলিশ লেখার দক্ষতা দরকার। আপনি সরাসরি বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস বা সরাসরি কোন প্রতিষ্ঠানের হয়েও কাজ করতে পারেন। কত টাকা আপনি ইনকাম করবেন তা নির্ভর করে আপনি কতটা দক্ষ।  ভালো মানের অনলাইন ব্লগ রাইটার হতে পারলে মাসে লক্ষাধিক টাকা আয় করা যায়।