একজন ব্যবসায়ী যেসব আচরনবিধি মেনে চললে আরো সফল হয়

ব্যবসায়ী আচরনবিধি

ব্যবসায়ী আচরনবিধি

ব্যবসায়ী আচরনবিধি

সফল ব্যবসায়ী একদিনে হয় না। আস্তে আস্তে যেমন সে ব্যবসা শিখে তেমনি তার আচরনবিধি পাল্টে ফেলে। একজন সফল ব্যবসায়ীর যেসব আচরনবিধি মেনে চলতে হয় সেই সম্পর্কে আলোচনা করা হল।

কারো সাথে যখন প্রথম পরিচয় হবে তখন করমর্দন করা, হ্যালো বলা, গ্ল্যাড টু মিট ইউ, ইত্যাদি বলার চেষ্টা করতে হবে। মনে রাখতে হবে প্রথম দেখাই আপনার সম্পর্কে একটি পজিটিভ ধারনা সে যেন পেয়ে যায়। আরো পড়ুন – হ্যান্ডশেক থেকেই যে ভাবে মানুষ চেনা যায়

একজন সফল ব্যবসায়ির গলার স্বর ও উচ্চারনের দিকে খেয়াল রাখা উচিত। খুব আস্তে বা খুব জোড়ে কথা বলবেন না। যা বলবেন তা ধীরে ও স্পস্ট করে বলুন, মনে রাখবেন আপনি যা বলছেন তা গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু আপনি কিভাবে বলছেন তা অধিক গুরুত্বপূর্ণ।

যখন কথা বলবেন তখন কাশি বা হাঁচি আসতেই পারে, তা দোষের কিছু না। এই ক্ষেএে ‘এক্সকিউজ মি’ বলুন।

কারো সাথে তর্কে যাবেন না। মতের মিল না হলে যুক্তি দিয়ে বুজাতে হবে। যদি সে যুক্তি না মানে তাহলে তাকে ২য় বার বুজাতে যাবেন না। কারন কিছু মানুষ আছে যাদের আপনি যতই বুজাবেন সে বুজবে না। সে বুজতে পারুক আর নাই পারুক আপনি তর্কে যাবেন না।

বড় কোন অনুষ্ঠানে নিজের পরিচয় নিজেই দিন। নিজেকে খুব বেশী হাইলাইট করবেন না। কোন মহিলা আপনার সাথে দেখা করতে আসলে উঠে দাড়ান এবং তাকে বসতে বলুন। কিন্তু মহিলার ক্ষেএে এটা দরকার নেই।

দরজায় দাড়িয়ে কথা না বলাই ভাল, বেশী দরকার না হলে কথা দীর্ঘ করবেন না। কোন অনুষ্ঠান থেকে ফিরে এসে পরের দিন ফোনে ধন্যবাদ জানান, রান্নার প্রশংসা করতে পারেন।

হাঁটার সময় পায়ের গোড়ালি আগে ফেলুন তাতে শব্দ হবে না। একজন সফল মানুষের পায়ে পায়ে দোষ থাকে জানেন তো? কারো সাথে হাঁটার সময় তার সাথেই হাঁটুন, এগিয়ে বা পিছিয়ে যাবেন না। এক সাথে কয়েক জন থাকলে ফিস ফিস করে কথা বলবেন না।

একজন ব্যবসায়ী যেসব আচরনবিধি মেনে চলে তার মধ্যে তার পোশাক পরিচ্ছেদ খুবই গুরুত্ব পায়। ঠিক মাপের পোশাক পরিধান করুন। বেশী ঢিলা পোশাক বা গায়ের সাথে লেগে থাকে এমন পোশাক পরবেন না। পোশাকের রং যেন খুব চোখে লাগে এমন কাপড় নির্বাচন করবেন না। কোথায় যাবেন, কি করবেন, ইত্যাদি বুজে পোশাক পরিধান করুন।

অন্ধের মত কাউকে অনুসরন করবেন না। নিজেকে নিজেই একটি ব্র্যান্ড বানানোর চেষ্টা করুন।