ব্যবসার কৌশল কি এবং যে কারনে ব্যবসায়িক কৌশল ঠিক করবেন

ব্যবসার কৌশল কি এবং কেন

ব্যবসায়িক কৌশল

ব্যবসায়িক কৌশল

দীর্ঘমেয়াদী ব্যবসায়িক পরিকল্পনাকে ব্যবসায়ের কৌশল বলা হয়ে থাকে। আমরা ব্যবসার কৌশলকে ব্যবসার রোডম্যাপ বলতে পারি। সাধারনত ব্যবসার  কৌশল মানে ব্যবসায়ের কার্যকারিতা উন্নত করার জন্য সামগ্রিক ম্যানেজমেন্ট প্ল্যানকে বোঝায়।

নির্দিষ্ট কোনও লক্ষ্য অর্জনের জন্য ব্যবসায়িক পরিকল্পনা কীভাবে কার্যকর করা উচিত তাই ব্যবসার কৌশল বর্ণনা করে।

এই দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনাটি বেশীর ভাগ নতুন উদ্যোক্তা গ্রহন করে না এবং এর ফলে ব্যবসায় ব্যর্থ হত্তয়ার সম্ভবনা অনেকগুন বেশী থাকে।  

আপনি যখন আপনার ব্যবসার কৌশল ঠিক করবেন এর সহজ মানে হচ্ছে ভবিষ্যতে কিভাবে ব্যবসাটিকে দেখতে চান এর একটি ছবি আঁকা।

ব্যবসায়ের কৌশল আপনার ব্যবসায়ের সঠিক দিক নির্ধারণ করতে সাহায্য করবে।

ব্যবসায়িক সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য ব্যবসায়ের কৌশল গুরুত্বপূর্ণ কেননা এটি আপনার ব্যবসার শক্তি এবং দুর্বলতাগুলি সনাক্ত করতে সহায়তা করবে।

ব্যবসায়িক কৌশল মূলত সম্ভাব্য প্রতিযোগী, টার্গেট মার্কেট এবং পরিকল্পনায় ফোকাস করে থাকে।

যে কোন ব্যবসা শুরু করার আগে টার্গেট মার্কেট ঠিক করতে হবে, অর্থাৎ আপনার গ্রাহক কারা হবে। এর পরে সম্ভাব্য প্রতিযোগী কে বা কারা তা সনাক্ত করতে হবে।

ব্যবসায় সফল হতে চাইলে অবশ্যই একটি কার্যকারী ব্যবসায়ের পরিকল্পনা ঠিক করতে হবে।

ব্যবসায়ের কৌশল ছাড়া ব্যবসাটিকে দীর্ঘ সময়ের জন্য চালানো কষ্টসাধ্য।

এটি  পুরো ব্যবসায়ের দিকনির্দেশনা তৈরি করে।

একটি বাস্তবসম্মত কৌশল ভবিষ্যতের সুযোগ এবং সম্ভবনা সনাক্ত করতেও সহায়তা করতে পারে।

সব ধরণের ব্যবসায় ব্যবসায়িক কৌশল ঠিক করা উচিত।

আপনার ব্যবসাটি ছোট হোক কিংবা বড় হোক কেন ব্যবসায়িক কৌশল আপনাকে একধাপ এগিয়ে রাখবে। কে এম চিশতি সিয়াম – ইউটিউব লিঙ্ক