১০টি অভ্যাস যা ধনী ও গরিবের মধ্যে মূল পার্থক্য করে দেয়

১০টি অভ্যাস যা ধনী ও গরিবের মধ্যে মূল পার্থক্য করে দেয়

ধনী ও গরিবের মধ্যে মূল পার্থক্য

ধনী ও গরিবের মধ্যে মূল পার্থক্য

ধনী ও গরিবের মধ্যে টাকা পয়সার ভিন্নতা তো আছেই, তবে এর চেয়ে বড় ভিন্নতা হল মানসিকতা। আজকের এই আর্টিকেলে আমি আপনার সাথে ১০টি অভ্যাস শেয়ার করতে চাই চাই যা ধনী ও গরিবের মধ্যে মূল পার্থক্য করে দেয়।

 

#১। ধনী লোকেরা সময় বাঁচাতে তাদের অর্থ ব্যয় করে। অন্যদিকে দরিদ্র লোকেরা তাদের সময়ের কোন মূল্য দেয় না।

 

#২। ধনী ব্যক্তিরা বিনিয়োগ সম্পর্কে নিজেকে শিক্ষিত করেন এবং বিনিয়োগ শিখতে অর্থ খরচ করেন। আর দরিদ্র মানুষেরা বিনোদনের পিছনে অর্থ খরচ করেন।

 

#৩। ধনী লোকেরা বিনিয়োগের মাধ্যমে তাদের অর্থ বৃদ্ধি করে। অন্যদিকে দরিদ্র লোকেরা কেবল অর্থের জন্য কাজ করে।

 

#৪। ধনী ব্যক্তিরা তাদের বাজেটের মধ্যে খরচ করে থাকেন। দরিদ্র লোকেরা অন্যকে দেখানোর জন্য অপ্রয়োজনীয় জিনিষ কিনতে ব্যস্ত থাকে।

 

#৫।  ধনী লোকেরা সফল লোকদের সাথে থাকতে পছন্দ করেন যেখানে দরিদ্র লোকেরা ভাঙা হৃদয় ও নেগেটিভ মানুষদের সাথে সময় কাটায়।

 

#৬। ধনী ব্যক্তিরা জানেন সম্পদ দীর্ঘমেয়াদী বাড়াতে হয়। অন্যদিকে দরিদ্র লোকেরা তাদের সম্পদ বাড়াতে অনেক বেশী তাড়াহুড়া করে।  

 

#৭। ধনী ব্যক্তিরা পরামর্শের জন্য সফল লোকের পরামর্শ নিয়ে থাকে, অন্যদিকে দরিদ্র লোকেরা কোন হতাশাগ্রস্থ মানুষের পরামর্শ নিয়ে থাকেন। আরো পড়ুন- জীবনে সফল হওয়ার ৫০টি উপায় 

 

৮। ধনী ব্যক্তিরা লক্ষ্য নির্ধারন করে এবং সেই লক্ষ পূরণ করার জন্য কাজ করেন, অন্যদিকে দরিদ্র লোকেরা শুধু কাজ করে যায় যেখানে তাদের কোন লক্ষ থাকে না।

 

৯। সম্পদশালী হতে হলে বিনিয়োগ করতে হয় এবং এর জন্য দরকার হয় রিস্ক বা ঝুঁকি নেওয়া। ধনী ব্যক্তিরা জেনে বুজে রিস্ক নেয় এবং দরিদ্র লোকেরা না বুজেই রিস্ক নেয়।

 

১০। ধনী ব্যক্তিরা তাদের সম্পদ পরিকল্পনা অনুযায়ী ব্যয় করেন, অন্যদিকে দরিদ্র মানুষেরা এই সব পরিকল্পনা মেনে চলে না। কে এম চিশতি সিয়াম – ইউটিউব লিঙ্ক