বিশ্বের শীর্ষ ১০ টি জুতা উৎপাদনকারী দেশ

শীর্ষ ১০ টি জুতা উৎপাদনকারী দেশ

বিশ্বের শীর্ষ ১০ টি জুতা উৎপাদনকারী দেশ

বিশ্বের শীর্ষ ১০ টি জুতা উৎপাদনকারী দেশ

জুতা মানুষের বিভিন্ন প্রয়োজনীয় অনুষঙ্গ গুলোর একটি। এটি একটি রপ্তানিযোগ্য পণ্যও বটে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ জুতা উৎপাদন করে তা বিভিন্ন দেশে রপ্তানি করে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা আয় করে থাকে। এখানে আমরা বিশ্বের শীর্ষ ১০ টি জুতা উৎপাদনকারী দেশ সম্পর্কে আলোচনা করব। নিচে তা বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

১০. তুরস্ক

তুরস্ক প্রতি বছর প্রায় ১৮০ মিলিয়ন জোড়া জুতা উৎপাদন করে থাকে। তুরস্কের সমৃদ্ধ চামড়া শিল্প জুতা উৎপাদনের জন্য এই দেশটিকে ভালো একটি ভিত্তি প্রদান করে থাকে। এই দেশটিতে সাধারণত বুট ও চপ্পল উৎপাদন করা হয়ে থাকে। এই দেশটিতে ছোট বড় মিলিয়ে মোট ৬৮৮ টি জুতা উৎপাদনকারী কোম্পানী রয়েছে।

৯. ইতালি

ইতালি বছরে প্রায় ২০৫ মিলিয়ন জোড়া জুতা উৎপাদন করে থাকে। এই দেশটি জুতার বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও চামড়ার জন্য বিশ্বব্যাপী বিখ্যাত। এই দেশের নকশাকারকরা পুরুষ ও মহিলাদের হাই হিলের জুতা তৈরির জন্য বিশ্ব সমাদৃত হয়ে থাকেন।

৮. মেক্সিকো

মেক্সিকো প্রতি বছর ২৪৫ মিলিয়ন জোড়া জুতা উৎপাদন করে থাকে। দক্ষ স্থানীয় শ্রমিক, ভাল নকশা এবং টেকসই উপকরণ জুতা রপ্তানিকারকদেরকে জুতা উৎপাদনের জন্য একটি ভালো ভিত্তি প্রদান করেছে। এই দেশের বিখ্যাত কাউবয় বুট স্থানীয় খুচরা বাজার ও রপ্তানী উভয়ের জন্যই হাত দ্বারা তৈরি করা হয়ে থাকে।

৭. থাইল্যান্ড

থাইল্যান্ডও প্রতি বছর মেক্সিকোর সমান অর্থাৎ ২৪৫ মিলিয়ন জোড়া জুতা উৎপাদন করে থাকে। এই দেশে সাধারণত খেলাধুলার জুতা, শিক্ষার্থীদের জুতা, স্যান্ডেল ও ফ্যাশন জুতা ইত্যাদি তৈরি করা হয়ে থাকে। এই দেশটিতে ভালো মানের চামড়ার জুতা পাওয়া যায়। তাছাড়া অত্যন্ত কম দামে পাইকারী জুতা ক্রয় করা যায়।

আরো জানুন – কাজ করার জন্য উন্নত বিশ্বের ১০ টি সেরা দেশ

৬. পাকিস্তান

পাকিস্তানে প্রতি বছর ২৯৫ মিলিয়ন জোড়া জুতা উৎপাদন করা হয়ে থাকে। পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল ফুটওয়্যার শো এবং পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল ম্যানুফেকচারার এসোসিয়েশন বিশ্বব্যাপী অত্যন্ত সুপরিচিত। এই দেশটিতে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের আন্তর্জাতিক মানের জুতা তৈরি হয়ে থাকে।

৫. ইন্দোনেশিয়া

ইন্দোনেশিয়া প্রতি বছর ৬৭০ মিলিয়ন জোড়া জুতা উৎপাদন করে থাকে। নিন্মমজুরি ও ভালো মানের জুতার কারণে নির্মাতারা এই দেশের জুতার প্রতি আকৃষ্ট হয়ে থাকেন। এমনকি চীন ও কোরিয়া থেকেও আন্তর্জাতিক বাজারে এই দেশের জুতার চাহিদা বেশি।

৪. ভিয়েতনাম

ভিয়েতনাম প্রতি বছর ৭৭০ মিলিয়ন জোড়া জুতা উৎপাদন করে থাকে। এই দেশটি সাম্প্রতিক বছর গুলোতে জুতার উৎপাদন প্রায় ১৬০ শতাংশ বৃদ্ধি করেছে। ভিয়েতনামে সাধারণত চামড়া থেকে ক্যানভাস জুতা, খেলাধুলার জুতা ও স্যান্ডেল বেশি তৈরি করা হয়ে থাকে।

৩. ব্রাজিল

ব্রাজিল প্রতি বছর প্রায় ৯০০ মিলিয়ন জোড়া জুতা উৎপাদন করে থাকে। জুতা উৎপাদনের দিক থেকে এই দেশটি বর্তমানে তৃতীয় স্থানে রয়েছে। উচ্চ মানের চামড়া ও শ্রমিকদের বেতন কম হওয়ার কারণে এটি সম্ভব হয়েছে।

২. ভারত

ভারত প্রতি বছর ২.২ বিলিয়ন জোড়া জুতা উৎপাদন করে থাকে। ফলে এই দেশটি বর্তমানে জুতা উৎপাদনের দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। সাম্প্রতিক বছর গুলোতে এই দেশে জুতার উৎপাদন প্রায় ৫৫ শতাংশ  বৃদ্ধি পেয়েছে। উচ্চ মান ও কম দামে চামড়া পাওয়া যায় বলে উৎপাদন বৃদ্ধি করা সম্ভব হয়েছে। ভারতীয় জুতা প্রস্তুতকারকরা পুরুষদের জুতা তৈরির উপর বেশি মনোযোগ দিয়ে থাকেন।

১. চীন

সারা বিশ্ব জুড়ে বিগত কয়েক বছর যাবৎ জুতার বাজারে নেতৃত্ব দিচ্ছে চীন। এই দেশটি বছরে প্রায় ১২.৭ বিলিয়ন জোড়া জুতা উৎপাদন করে থাকে। অন্যান্য রপ্তানিকারক দেশের তুলনায় এই দেশটির জুতা উৎপাদনের পরিমাণ বিশাল। আন্তর্জাতিক বাজারের পাশাপাশি এই দেশটির একটি বৃহৎ দেশীয় বাজারও রয়েছে।