গাড়ি কেনার আগে মাথায় রাখুন এই ৪টি বিষয়

গাড়ি কেনার আগে মাথায় রাখুন এই ৪টি বিষয়

গাড়ি কেনার আগে

চার চাকার একটি গাড়ি শুধুমাত্র একটি যানবাহনই না, এর সাথে জড়িত থাকে অনেক বছরের একটি লালিত স্বপ্ন, আবেগ, ভালোলাগা এবং অবশ্যই প্রয়োজনীয়তা। নিজের একটি ভালো ব্রান্ডের গাড়ি, বিলাসবহুল বাড়ি, আরামদায়ক জীবনযাপন করতে চাওয়া অন্যায় কিছু না। একটা গাড়ি যেমন আপনার সখ পূরণ করতে পারে, প্রয়োজন মিটাতে পারে ঠিক তেমনি ভুল সিদ্ধান্ত আপনাকে আর্থিক ক্ষতির মুখে ফেলে দিতে পারে।

হালাল পথে কষ্টের টাকায় গাড়ি কেনার আগে আমাদেরকে অবশ্যই কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হবে। আসুন কি সেই ৫টি বিষয় তা একটু জানার চেষ্টা করি।

#১। এটি কি শুধুমাত্র সখ পূরণ নাকি প্রয়োজনীয়তা তা নির্ণয় করুন।

প্রয়োজন এবং সখ এই ২টি বিষয় এক হতে পারে না। তবে সখ যখন থাকে তখন একটা সময়ে তা দরকারে পরিনত হয়। নিজের কাছে যথেষ্ট টাকা যদি থাকে তাহলে অবশ্যই সখ পূরণ করার জন্য গাড়ি কিনতেই পারেন।

আর যদি যথেষ্ট টাকা না থাকে, গাড়ি কেনার জন্য যদি লোন করতে হয় তবে আরেকবার ভাবুন। এই ক্ষেএে যদি প্রয়োজন যদি বেশি থাকে তবে লোন করে কেনা যেতে পারে। তাই গাড়ি কেনার বিষয় সখ ও প্রয়োজনীয়তা উভয়কেই গুরুত্ব দিতে হবে।

#২। গাড়ি যেমন একটি সম্পদ ঠিক তেমনি একটি দায়ও বটে!

গাড়ি একটা মূল্য সব সময়ই থাকে, তা যতই পুরানো হোক না কেন। এই বিবেচনায় এটি একটা সম্পদ। এছাড়া সামাজিক মর্যাদা বাড়াতেও গাড়ি অনেক বড় ভূমিকা রাখে।

অন্যদিকে একটা গাড়ি পরিচালনার একটা খরচ কেনার পর থেকেই শুরু হয়। নিজে চালাতে না পারলে ড্রাইভার খরচ সহ কমপক্ষে গড়ে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত খরচ হতে পারে। তাই এই দায় নিয়ে আপনি কতটুকু প্রস্তুত তা ভেবে গাড়ি কেনার সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

#৩। গাড়ির দাম ও টাকার যোগান

বাজারে বিভিন্ন দামের, বিভিন্ন ব্রান্ডের গাড়ি রয়েছে। গাড়ির কনডিশন বুঝে দাম বিভিন্ন। আমাদের দেশ ব্রান্ড নিউ গাড়ির চাহিদা খুবই কম, রিকন্ডিশন্ড ও ব্যবহার করা গাড়ি বেশি কেনা হয়।

গাড়ি কেনার বিষয়ে সব থেকে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে গাড়ির মূল্যকে। নিজের জমানো টাকা দিয়ে কিনতে পারলে সব থেকে ভালো, আর এত টাকা না থাকলে ব্যাংক লোন বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে লোন করা যেতে পারে।

গাড়ির দামের ৫০ শতাংশ বা সর্বোচ্চ ৪০ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ পাওয়া যায়। তবে মনে রাখতে হবে এই টাকা আপনাকে সুদ সহ ফেরত দিতে হবে। যা সামনের ৪/৫ বছর আপনাকে আর্থিকভাবে পিছিয়ে রাখবে।

আরো পড়ুন- কাজে লেগে থাকুন না হয় হতাশা আপনার পিছনে লেগে থাকবে

#৪। বিক্রয় মূল্য ভাবতে ভুলবেন না

একটা গাড়ি সারা জীবন থাকে না। দরকারে বা নতুন গাড়ি কেনার ক্ষেএে আজকের এই গাড়িটি বিক্রি করার দরকার হতে পারে।

তাই এমন গাড়ি কেনা ঠিক হবে না যার বিক্রয় মূল্য অনেক কমে যেতে পারে। এই ক্ষেএে টয়োটা গাড়ির বাজারই সবচেয়ে ভালো, কেননা এর যন্ত্রপাতি সহজলভ্য এবং বিক্রি করলে মোটামুটি একটা ভালো দাম পাওয়া যায়।

সর্বপরি, গাড়ি কেনার মত একটি বড় আর্থিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে একটু সময় নিয়ে ভেবে চিন্তে সিদ্ধান্ত নেওয়াই উত্তম।