কিভাবে গ্রামে ব্যবসা শুরু করবেন এবং ৪টি লাভজনক বিজনেস আইডিয়া

গ্রামে ব্যবসা করার জন্য ৪টি লাভজনক বিজনেস আইডিয়া

গ্রামে ব্যবসা করার জন্য ৪টি বিজনেস আইডিয়া

গ্রামে ব্যবসা করার জন্য ৪টি বিজনেস আইডিয়া

আপনি শহরে ব্যবসা করুন কিংবা গ্রামে ব্যবসা শুরু করুন না কেন আপনার প্রধান লক্ষ্য মূলত দুইটি। এক, সম্ভাব্য গ্রাহকদেরকে সেবা দেওয়া এবং দুই, সেবা দেওয়ার পাশাপাশি ব্যবসা থেকে লাভ করা। আমাদের প্রথমে মাথায় রাখতে হবে, শহরের তুলনার গ্রামে ব্যবসা শুরু করা তুলনামূলক সহজ কিন্তু বেচা বিক্রি তুলনামূলক কম।  

গ্রামে ব্যবসা শুরু করার অনেক সুবিধা রয়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য সুবিধা সহজে জায়গা পাওয়া যায়, শ্রমিক খরচ কম, এবং ব্যবসা শুরু করার ধাপগুলো তুলনামূলক সহজ।

গ্রামে ব্যবসা শুরু করার আগে ঐ এলাকা নিয়ে আপনাকে একটু ভাবতে হবে। অর্থাৎ ঐ এলাকার মানুষের আয়-ব্যয় ও চাহিদার উপর ভিত্তি করে আপনাকে একটি লাভজনক বিজনেস আইডিয়া খুঁজে বের করতে হবে।

এবার আসুন জেনে নেই গ্রামে ব্যবসা শুরু করার জন্য লাভজনক ৪টি বিজনেস আইডিয়া।

#৪। বাণিজ্যিকভাবে ছাগল পালন

বাণিজ্যিকভাবে ছাগল পালন ব্যবসা দিন দিন জনপ্রিয়তা অর্জন করছে এবং ইতিমধ্যে একটি প্রতিষ্ঠিত এবং লাভজনক ব্যবসা। ছোট আকারের ছাগলের খামার স্থাপন করা খুব সহজ।

তবে বড় আকারে বাণিজ্যিকভাবে ছাগল পালন করার জন্য আপনাকে সঠিক পরিকল্পনা তৈরি করতে হবে। আপনি জেনে অবাক হবেন ডেইরি খামারের ব্যবসার চেয়ে ছাগল পালনে লাভ বেশী।

এছাড়া ছাগলের রোগ বালই কম হয় এবং খুব কম খরচে ছাগল পালন করা যায়। প্রতিটি বয়স্ক ছাগলের জন্য ১ বর্গমিটার বা ১০ বর্গফুট জায়গার দরকার হয়।

আপনার গ্রামে যদি খোলা ও উঁচু জায়গা থাকে তবে আপনি এই লাভজনক ব্যবসা শুরু করতে পারেন। পড়ুন – ছাগল পালন ব্যবসা শুরু করার ১৩টি কারন

#৩। একসাথে হাঁস ও মাছ চাষ

এই ব্যবসা শুরু করতে চাইলে আপনার বড় একটি জলাশয় থাকতে হবে। বড় পুকুরে ছোট পরিসরে শুরু করা গেলেও বাণিজ্যিকভাবে এই ব্যবসার জন্য একটি ঘের বা বড় জলাশয় লাগবে। হাঁসের বাসস্থান ঘেরের উপরে থাকবে এবং পানিতে ওঠা নামার জন্য সিড়ি করে দিতে হবে, তবে খেয়াল রাখতে হবে সিঁড়ি যেন খুব বেশী উঁচু না হয়।

খাকি ক্যাম্বেল ও ইন্ডিয়ান রানার এই দুই জাঁতের হাঁস দিয়ে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। হাঁস পানিতে সাঁতার কাটবে যা মাছের স্বাস্থের জন্য উপকারি, এছাড়া হাঁস পালন করলে মাছের খাবার তুলনামূলক অনেক কম লাগবে।

 

#২। কম্পিউটার প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট

এই আধুনিক বিশ্বে আপনি যদি একজন কম্পিউটার বিশেষজ্ঞ হয়ে থাকেন এবং এই শিল্পে একটি ব্যবসা শুরু করতে চান তবে আপনি আপনার গ্রামে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ ব্যবসা শুরু করতে পারেন। শুরুর দিকে শিক্ষার্থী পেতে কিছুটা সময় লাগতে পারে, তবে এই ব্যবসা লাভজনক হবে তাতে সন্দেহ নেই।

 

#১। ব্লগ

আপনি গ্রামে থাকেন আর শহরে থাকেন না কেন আপনি এই ব্যবসা যেকোন জায়গায় বসে শুরু করতে পারেন। আপনার যদি ইংলিশ বা বাংলায় লেখার দক্ষতা থাকে তাহলে খুব কম খরচে এক ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। 

পড়ুন – কিভাবে অনলাইন ব্লগ থেকে টাকা আয় করা যায় 

সাধারনত গ্রামে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট নাও থাকতে পারে তবে সমস্যা নেই আপনি মোবাইল ডাটা ব্যবহার করতে পারেন। গ্রামে বসে ব্লগ চালানো আর শহরে বসে ব্লগ চালানোর মধ্যে কোন পার্থক্য নেই, শুধু আপনাকে নিশ্চিত হতে হবে আপনার একটি কম্পিউটার আছে এবং ইন্টারনেট সংযোগ আছে।

বিশ্বাস করুন একটি অনলাইন ব্লগ আয়ের সেরা একটি মাধ্যম হতে পারে যদি আপনার সত্যিকার অর্থে এই কাজে আপনার Passion থাকে। // কে এম চিশতি সিয়াম – ইউটিউব লিঙ্ক