কাউকে দেখানোর জন্য কিছু করবেন না

কাউকে দেখানোর জন্য কিছু করবেন না

কাউকে দেখানোর জন্য কিছু করবেন না

আমাদের মধ্যে ঐ ব্যক্তি সব চেয়ে বোকা যে অন্য মানুষ কি ভাববে সে সম্পর্কে খুব বেশি যত্নশীল। সকলকে সন্তুষ্ট ও মুগ্ধ করার চেষ্টা করা নিরর্থক এবং ফলহীন। কাউকে দেখানোর জন্য কোন কিছু কেনা বা করা আপনাকে কোন দিন সফল করতে পারবে না।

 

আকাশে যদি চাঁদ উঠে তা কোন দিন কেউ ধরে রাখতে পারে না। আপনি চাইলেই আপনার মাথায় উপর থাকা সূর্যকে অস্বীকার করতে পারবেন না। ঠিক তেমনি আপনি যদি জীবনে সফল হন তবে তা সবাই জানতে পারবে।

 

আমি যদি রাস্তায় বের হয়ে ব্যান্ড পার্টি বাজাতে বাজারে বলতে থাকি আমি সফল তাহলেই কি আমি সফল হয়ে যাব? মোটেই না! আমাদের মনে রাখা উচিত, কোন ব্যক্তি জীবনে সফল হলে তার ছেঁড়া লুঙ্গিটাও জাদুঘরে ঠাই পায়, কিন্তু জীবনে ব্যর্থ হলে আজকের সুট প্যান্টেরও কোন দাম নেই।  

 

বিশ্বাস করুন কাউকে দেখানোর জন্য কিছু করা এর সহজ মানে নিজের হাঁটার রাস্তায় কাটা বিছানোর সমান। কাউকে দেখিয়ে কিছু করলে হয়ত সাময়িক আত্নতৃপ্তি পাওয়া যেতে পারে। তবে তা এতটাই সাময়িক যা কিছু সময় পরে মানুষ আর মনে রাখে না, বরং ঐ কার্যাবলী হাসির খোরাক হয়ে উঠে।

 

ধরুন সাময়িক আত্নতৃপ্তি জন্য আমি মিথ্যার আশ্রয় নিলাম, নিজের সম্পর্কে কিছু কথা বানিয়ে বললাম। হয়ত মিথ্যা বলে কিছু দিন পার করতে পারব, কিন্তু এই মিথ্যা আমাকে দীর্ঘ মেয়াদের জন্য মানুষের চোখে খারাপ বানিয়ে দিবে।

 

এর পর ধরুন, আমার কাছের এক বন্ধুর খুবই ভাল একটি ক্যামেরা আছে, এখন আমারও এ রকম বা এর থেকে ভাল ক্যামেরা চাই। বাস্তবে আমার এই রকম ক্যামেরা দরকার না হলেও আমি কিনব। ফলে কিছু দিন পরে আমি বুজতে পারব ঐ ক্যামেরা আমার কোন কাজেই লাগে নাই।

 

আবার ধরুন আমার আশে পাশের মানুষ খুবই ফ্যাশন সচেতন। তারা নিত্য নতুন কাপড় কিনতে ও পরতে পছন্দ করে। এই বিষয়টা আমার ভাল লাগছে না, এর ফলে আমার যথেষ্ট কাপড় থাকা সত্বেও নতুন কাপড় কিনছি, যা আমার টাকা জমানোর পথে বড় বাঁধা।

 

এ রকম বিষয় আপনার ক্ষেএেও ঘটতে পারে। এই ক্ষেএে আপনাকে মনে রাখতে হবে অন্য মানুষ আপনার সম্পর্কে কি ভাববে তার থেকে বেশী গুরুত্বপূর্ণ আপনার বর্তমান আর্থিক অবস্থা ও আপনার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা।  

 

মানুষ সামাজিক জীব সেটা অস্বীকার করার উপায় নেই। তবে আমি বিশ্বাস করি অন্যকে মুগ্ধ করার জন্য আপনার নিজের সফলতার পথে কাটা বিছাবেন না।

কে এম চিশতি সিয়াম // ইউটিউব লিঙ্ক 

আরো পড়ুন –