ইতিবাচক চিন্তাভাবনা কি এবং ইতিবাচক মানসিক মনোভাব অর্জনের ৫টি সহজ উপায়

ইতিবাচক চিন্তাভাবনা কি এবং ইতিবাচক মানসিক মনোভাব অর্জনের ৫টি সহজ উপায়

ইতিবাচক চিন্তাভাবনা কি

ইতিবাচক চিন্তাভাবনা

ইতিবাচক চিন্তাভাবনা একটি মানসিক মনোভাব যা জীবনের উজ্জ্বল দিককে কেন্দ্র করে এবং ইতিবাচক ফলাফল প্রত্যাশা করে। ইতিবাচক মানসিকতার সাথে সম্পর্কিত অনেকগুলি গুণাবলী এবং বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যার মধ্যে আছে: আশাবাদী হওয়া, গ্রহণযোগ্যতা, নমনীয়তা, এবং কৃতজ্ঞতা।

একটি ইতিবাচক মনোভাব আপনাকে সুখী এবং মানসিকভাবে আরোও বেশি শক্তিশালী করতে পারে। ইতিবাচক চিন্তাভাবনা অন্যের সাথে সুসম্পর্ক গড়ে তুলতে সাহায্য করে এবং একই সাথে সাফল্যের সম্ভাবনাও বাড়িয়ে তোলে।

ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি আপনাকে আরও সৃজনশীল করে তুলতে পারে এবং এটি আপনাকে আরও ভাল সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করতে পারে। আজকের এই আর্টিকেলে আমি আপনার সাথে ইতিবাচক মানসিক মনোভাব অর্জনের জন্য ৫টি সহজ উপায় তুলে ধরার ইচ্ছা প্রকাশ করছি।

#১। ইতিবাচক ব্যক্তিদের সাথে নিজেকে ঘিরে রাখা।

আপনি যদি সর্বদা সব ক্ষেত্রে অভিযোগকারী এবং নেতিবাচক লোকদের সাথে থাকেন তবে আপনিও অভিযোগকারী হয়ে উঠবেন এবং তাদের মতো সব কিছুতেই নেতিবাচক বিষয় খুঁজে পাবেন।

আপনি ভাবতে পারেন আপনি নিজে ইতিবাচক থাকবেন এবং তাদেরকে পরিবর্তন করতে পারবেন কিন্তু এইটা মোটেই সহজ নয়। এমন লোকদের সাথে সংযোগ স্থাপনের চেষ্টা করুন যারা অন্য মানুষদেরকে নিয়ে কম কথা বলে এবং বিভিন্ন আইডিয়া নিয়ে বেশী কথা বলে।

#২। আপনার ব্রেনে ইতিবাচক বিষয় আপলোড করুন।

একটি ইতিবাচক বার্তা সহ বই পড়তে পারেন, অনুপ্রেরণামূলক ভিডিও দেখতে পারেন। অন্যের সাথে পজিটিভ থাকা উপায়গুলো নিয়ে কথা বলতে পারেন। মূল কথা আপনার ব্রেনে যতটা সম্ভব ইতিবাচক বিষয় আপলোড করার চেষ্টা করুন।

#৩। নিজের সাথে কথা বলুন এবং একা একা হাসুন।

আপনি ভাবতে পারেন আমি আপনাকে পাগল হওয়ার উপায় বলছি, কিন্তু বিশ্বাস করুন এই বিষয়টি ইতিবাচক চিন্তাভাবনা অর্জনের জন্য দারুন কাজ করে।

প্রতিদিন কমপক্ষে দুই বার আপনার জীবনে ঘটে যাওয়া যে কোন আনন্দের স্মৃতি যদি আপনি মনে আনতে পারেন তবে তা ইতিবাচক চিন্তাভাবনা ধরে রাখতে সাহায্য করবে।

#৪। আপনার চিন্তাভাবনা পরিবর্তন করুন।

ইতিবাচক চিন্তাভাবনা সব সময় করা যায় না যেমন সত্যি তেমনি নেতিবাচক চিন্তাভাবনাও করা যাবে না। আপনার চিন্তাভাবনা পরিবর্তন করার জন্য আপনি প্রতিদিন কী ভাবছেন তার উপর একটু চিন্তা করুন।

কোনো কথা বলার আগে আপনি কি বলছেন একটু ভেবে নিন। ঠিক তেমনি যে কোনও কাজ শুরু করার আগে একটু থেমে এর ফলাফল কি হতে পারে তা বোঝার চেষ্টা করুন। আরও পড়ুন – লক্ষ্য নির্ধারন এবং পূরণ করতে চাইলে এই ৫টি ভুল করা যাবে না

#৫। গড়িমসি ছেড়ে দিয়ে একটিভ থাকুন।

ইতিবাচক চিন্তাভাবনার অন্যতম পূর্ব শর্ত নিজেকে ব্যস্ত রাখা। আপনি যখনই অলস সময় কাটাবেন তখনই নানা রকম নেগেটিভ চিন্তা আপনার মাথায় ভর করবে।

আপনি যদি কোন কাজ শুরু করতে চান তবে এখনই শুরু করুন এবং কোন কাজ বাদ দিতে চাইলে এখনই তা বাদ দিন। গড়িমসি ছেড়ে দিয়ে কাজ করতে পারলে ইতিবাচক চিন্তাভাবনাও ধরে রাখা যায় যা আপনাকে দিন শেষে সফল করতে বিশেষভাবে সাহায্য করবে। – কে এম চিশতি সিয়াম – ইউটিউব লিঙ্ক